- সুনামগঞ্জের খবর » আঁধারচেরা আলোর ঝলক - http://sunamganjerkhobor.com -

দুর্নীতি কমলে উন্নয়ন আরও গতিশীল হবে

স্টাফ রিপোর্টার
দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখ্ত বলেছেন, ‘বাংলাদেশে অনেক উন্নয়ন কাজ হচ্ছে। বাংলাদেশ ২০৪১ সালে উন্নত দেশ হবে। এই অগ্রযাত্রায় সবাইকে কাজ করতে হবে। দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমরা শূন্য সহনশীল নীতি নিয়ে কাজ করছি। দুর্নীতি কমলে উন্নয়ন আরও গতিশীল হবে। তাই যেখানেই দুর্নীতি হবে সেখানে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ জানাতে হবে।’
দুদক সচিব আরও বলেন, ‘নৈতিকতাবোধ জাগ্রত হলে অবশ্যই আমরা উন্নত দেশের ন্যায় এগিয়ে যাব। তাই নতুন প্রজন্মকে ও স্কুলের শিশু শিক্ষার্থীদের দুর্নীতি প্রতিরোধ ও সততার সাথে গড়ে তোলতে হবে। প্রতিটি বিদ্যালয়ের পাঠদানের পূর্বে শপথ অনুষ্ঠানে দুর্নীতিমুক্ত ও ন্যায় পরায়ন থাকার অঙ্গীকার করাতে হবে। কারণ সন্তানদের চাপের কারণে অনেকসময় অভিভাবকরা দুর্নীতি করতে বাধ্য হয়। শিক্ষার্থীদের মধ্যে সততাবোধ জাগিয়ে দিতে হবে।’
তিনি আরও বলেন,‘ দুর্নীতি দমন কমিশন আগের চেয়ে অনেক সক্রিয় ও দুর্নীতি প্রতিরোধে প্রতিনিয়ত মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে। তবে দুর্নীতি প্রতিরোধে সমাজের সকল স্তরের মানুষকে সচেতন হতে হবে। দুর্নীতির সুনির্দিষ্ট তথ্য থাকলে ১০৬ নম্বরে ফোন করলে দুদক টিম তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেবে।’
দুদক সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখ্ত আরও বলেন, ‘দুর্নীতি করব নাÑএই মানসিকতা সবখানে ছড়িয়ে দিতে হবে। দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলনকে আরও গতিশীল করতে হবে। সমাজের সব শ্রেণির মানুষকে এই আন্দোলনে যুক্ত করতে হবে। একটি প্রতিষ্ঠানের প্রধান যদি মনে করেন তাঁর প্রতিষ্ঠানে দুর্নীতি করতে দেবেন না তাহলে সেটা সম্ভব। আমরা সবখানে এই মানসিকতার লোক চাই। সবার চেষ্টায় এই দেশকে দুর্নীতিমুক্ত দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই।’
সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শনিবার বিকেল চারটায় এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। দুদকের সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এই সভা অনুষ্ঠিত হয় ।
এতে স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, পানি উন্নয়ন বোর্ড, শিক্ষাবিভাগের কর্মকর্তা, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্যসহ বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. সফিউল আলমের সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. শরিফুল ইসলামের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি নুরুর রব চৌধুরী, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ পরিমল কান্তি দে, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জিল্লুর রহমান, পাগলা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ সৈয়দ রমিজ উদ্দিন, শান্তিগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সফিকুল ইসলাম, দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের সম্পাদক পঙ্কজ কান্তি দে, প্রথমআলোর স্টাফ রিপোর্টার অ্যাড. খলিল রহমান, দৈনিক আমাদেরসময়ের জেলা প্রতিনিধি বিন্দু তালুকদার, লবজান চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের সততা সংঘের সভাপতি মমতাজ বেগম ও এইচএমপি উচ্চ বিদ্যালয়ের সততা সংঘের সভাপতি লিয়ন চৌধুরী প্রমুখ।
মতবিনিময় সভায় দুদক সচিবের কাছে সুনামগঞ্জে দুর্নীতি দমন কমিশনের একটি অফিস স্থাপনের দাবি জানালে বিষয়টি তিনি বিবেচনা করে দেখবেন বলে জানান।
মতবিনিময় সভায় দুর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক আবদুল্লাহ আল জাহিদ, সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাশ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) প্রদীপ কুমার সিংহ, সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের পওর শাখা-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক ভুইয়া ও পওর শাখা-২ এর নির্বাহী প্রকৌশলী খুশি মোহন সরকার, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইয়াসমিন নাহার রুমা, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সমীর বিশ্বাস, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাফি উল্লাহ তপন, টিআইবির সুনামগঞ্জ সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি ধূর্জটি কুমার বসু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভায় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা সততা সংঘ ও সততা স্টোরের কার্যক্রম তুলে ধরেন।