দেড় লাখ টাকার গাছ ৩০ হাজার টাকায় বিক্রি

দিরাই প্রতিনিধি
দিরাই পৌরসভার মেয়র ক্ষমতার অপব্যবহার করে সরকারের পূর্বানুমতি ছাড়াই অবৈধভাবে বিশাল একটি ছায়াবৃক্ষ কেটে ফেলেছেন। দেড় লাখ টাকা মূল্যের এই বৃক্ষটি মাত্র ৩০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিয়েছেন বলে জানা গেছে।
জানা যায়, ঈদের আগের দিন পৌরসভাস্থ ৭ নং ওয়ার্ডে ২০৩ নং দাগের ১ নং খতিয়ানে দাউদপুর-রাধাঁনগর সড়কের পাশে অবস্থিত এই প্রাচীন বৃক্ষ কেটে ফেলা হয়েছে। মঙ্গলবার ইউনিয়ন ভুমি উপসহকারি কর্মকর্তা প্রমোদ রঞ্জন দাস ও সার্ভেয়ার রুহুল আমিন সরেজমিন তদন্তে গিয়ে এর সত্যতা পান। এ ব্যাপারে সার্ভেয়ার রুহুল আমিন এ প্রতিবেদককে জানান, সরকারের পক্ষে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের মালিকানাধীন ফলায়িত বিশাল ছায়া বৃক্ষটি পৌরসভার মেয়র মহোদয় অবৈধভাবে কেটে ফেলেছেন, গাছটি ৩০ হাজার টাকায় ব্যবসায়ী জাকারিয়ার কাছে বিক্রি করেছেন বলে মেয়র মহোদয় আমাদের কাছে স্বীকার করেছেন । স্থানীয়রা জানান গাছটির মুল্য হবে দেড় লক্ষ টাকা।
তবে মেয়র মোশাররফ মিয়া বলছেন, মন্ত্রনালয় পৌরসভার কাছে হস্তান্তর করেছে, আমার কাছে এর পরিপত্র আছে, রাস্তা প্রশস্তকরণের স্বার্থে পৌরসভায় রেজুলেশনের মাধ্যমে গাছ কাটার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
স্থানীয়রা জানান, ১৯৭৯ সালে গাছটি রোপন করা হয়েছিল, প্রায় ৪০ বছর বয়সী বিশাল এই ছায়া বৃক্ষটি কালের সাক্ষী ছিল বলে জানান অনেকে।
দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(অ:দা:) শাল্লা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুম বিল্লাহ জানান, সার্ভেয়ার এবং তহশিলদারের সরেজমিন প্রতিবেদন পাওয়ার পর যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।