দোয়ারায় অন্যকে ফাঁসাতে ভাই কে জবাই করে হত্যা

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি
দোয়ারাবাজারের পল্লীতে অন্যকে ফাঁসাতে নিজের বড় ভাইকে জবাই করে হত্যা করেছে সৎ ভাইয়েরা। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সদর ইউনিয়নের মাইজখলা গ্রামে। পুলিশ শুক্রবার সকালে মকসুদ আলীর পুত্র আজিব উদ্দিন (৪৫) এর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে। সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে শনিবার সকালে তার নিজ গ্রামের কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়। এ ঘটনায় নিহতের বড় ছেলে মো. মোস্তাকিম (১৮) দোয়ারাবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলা নং-২ তারিখ ৬/৭/১৯ইং। গত শুক্রবার লাশ উদ্ধারের পর সুনামগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. মিজানুর রহমান পিপিএম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
এরপর নিহত আজিব উদ্দিনের চার ভাই আবুল কাশেম (৩০), আব্দুল আওয়াল (৩৫), আব্দুল মজিদ (৩৮), ফয়জুর রহমান (২৭) ও তাদের পিতা মকসুদ আলী কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা আবুল কাশেম হত্যার ঘটনা স্বীকার করে।
মাইজখলা গ্রামের জসিম উদ্দিন জানান, আমার পুকুর পাড়ের দুই দিকে জাল দিয়ে বেড়া দেই পুকুরের মাছ আটকানোর জন্য। রাতের আঁধারে আবুল কাশেম ও তার চার ভাই মিলে আমার পুকুরের বেড়ার জাল খুলে দিয়ে প্রায় ত্রিশ লক্ষ টাকার ক্ষতি করে। আমি নিরূপায় হয়ে তাদের বিরুদ্ধে আদালতে একটি মামলা করি। মামলা দেয়ার পর থেকে আমাকে তারা বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। এমনকি ঐদিন তাদের বড় ভাইকে তারা নিজেরা গলাকেটে হত্যা করে উল্টা আমাদেরকে মারপিট করে পুলিশের কাছে ধরিয়ে দেয়।’
দোয়ারাবাজার থানার ওসি মো. আবুল হাসেম বলেন, ‘আমরা কম সময়ের ভেতরে খুনিদের চিহ্নিত করতে সক্ষম হয়েছি। খুনের সাথে জড়িত চারজনকে গ্রেফতারও করেছি। নিহতের বড় ছেলে বাদি হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।’