দ. সুনামগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১, আহত ৬

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
দক্ষিণ সুনামগঞ্জের পাগলায় প্রাইভেট জিপগাড়ী ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষের ঘটনায় ১ জন নিহত ও ৬ জন আহত হয়েছেন।
নিহত ব্যক্তি উপজেলার জয়কলস ইউনিয়নের সদরপুর গ্রামের বাবুল দেবের ছেলে বাপ্পু দেব (২৩)। শুক্রবার সন্ধ্যা ৬ টায় এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।
আহতরা হলেন, মোটরসাইকেল চালক সদরপুর গ্রামের ডা. ময়না মিয়ার ছেলে মারুফ আহমদ (২৪), একই গ্রামের মনসুর আলীর ছেলে মনোয়ার হোসেন (২৫) ও জিপগাড়ীর যাত্রী সিলেটের আওয়ামী লীগ নেতা বদরুল ইসলাম (৪২)। আহত অন্য দুই জনের নাম তাৎক্ষণিকভাব জানা যায়নি।
তবে আহত প্রত্যেককে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে     
পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা। এদের মধ্যে দুই জনের অবস্থা আশংকাজনক।
প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, সুনামগঞ্জের পৌর মেয়র প্রয়াত আয়ুব বখ্ত জগলুলের জানাজা শেষে আ.লীগ নেতা বদরুল ইসলাম প্রাইভেট জিপগাড়ী (ঢাকা মেট্রো ঘ ১১-৭১৮১) করে সিলেটে ফিরছিলেন। অপরদিকে বাপ্পু মোটরসাইকেল (সুনামগঞ্জ হ ১১-১৯৩৭) যোগে পাগলাবাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন।
পথে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের দক্ষিণ সুনামগঞ্জের জামেয়া ইসলামিয়া পাগলা মাদ্রাসার সামনে এলে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই বাপ্পু দেব নিহত হন।
স্থানীয়রা আহতদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় দ্রুত সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, পশ্চিম পাগলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূরুল হক, জয়কলস ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদ মিয়া।
জয়কলস পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ রুনু মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘খবর পেয়ে আমরা এসে লাশ ও দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ী দুটি উদ্ধার করেছি। নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’