ধর্মঘটে অচল জগন্নাথপুর

জগন্নাথপুর অফিস
সাত দফা দাবিতে সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকা সকল সন্ধ্যা কর্মবিরতির নামে ধর্মঘটে অচল হয়ে পড়ে জগন্নাথপুর উপজেলা। সড়কে কোনো ধরনের যানবাহন চলাফেরা না করায় জনসাধারণকে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়।
সোমবার সকাল থেকে জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ-রশিদপুর-সিলেট সড়ক ও জগন্নাথপুর-সুনামগঞ্জ সড়কে যাত্রীবাহী মিনিবাসসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। এছাড়া জগন্নাথপুরের অভ্যন্তরিণ সকল সড়কে চলেনি কোনো যানবাহন।
এদিকে দুপুরে
স্থানীয় পৌর পয়েন্টে পিকেটিং করা হয়েছে। সকালে পৌর পয়েন্টে যাত্রী মনে করে এইএসসি পরীক্ষার্থী বহনকারী একটি ইজিবাইক গাড়ি শ্রমিকদের বাধার মুখে পড়ে। দুপুর ১টায় পৌর পয়েন্টে মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়।
মানববন্ধন শেষে পৌরশহরের পূর্বপাড় অটোরিকশা স্ট্যান্ডের সভাপতি শফিকুল ইসলাম খেজরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুর আহমদের পরিচালনায় প্রতিবাদসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন শ্রমিক নেতা আব্দুল মুকিত, মশাহিদ মিয়া, আজিজ ইসলাম, আলী রাজ প্রমুখ।
ভুক্তভোগি জয়নাল আবেদীন নামে এক যাত্রী বলেন, ‘বিভাগীয় শহরে যাওয়ার জন্য গ্রাম থেকে উপজেলা সদরে এসে জানতে পারি মিনিবাসসহ সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ। ’
জগন্নাথপুরের পরিবহন শ্রমিক নেতা নিজামুল করিম বলেন, ‘পুলিশী হয়রানি বন্ধসহ সাত দফা দাবিতে সিলেট বিভাগে ডাকা সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের এই কর্মসূচি সমর্থন করে আমরা জগন্নাথপুরে শান্তিপূর্ণ পবিবেশে কর্মবিরতি পালন করেছি।’
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হারুনুর রশিদ চৌধুরী বলেন, ‘শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে জনসাধারণ দুর্ভোগে পড়েছেন। তবে জগন্নাথপুরে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ ছিল।’