ধর্মপাশায় ফরম পূরণ করেও পরীক্ষা দিতে না পারার অভিযোগ

ধর্মপাশা প্রতিনিধি
গত বছর এসএসসি পরীক্ষায় মানবিক বিভাগ থেকে অংশগ্রহণ করে গণিত বিষয়ে অকৃতকার্য হয়েছিল ধর্মপাশা জনতা মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী আশরাফ উদ্দিন। এবারের এসএসসি পরীক্ষায় সকল বিষয়ে অংশগ্রহণের জন্য নির্বাচনী     
পরীক্ষায় সকল বিষয়ে কৃতকার্য হয় সে। নির্বাচনী পরীক্ষার ফলাফলের পর ফরম পূরণ শুরু হলে সকল বিষয়ে পরীক্ষা দিতে ফরম পূরণের জন্য ২ হাজার টাকা প্রধান শিক্ষকের কাছে জমা দেয় সে। এ সময় তাকে কোনো প্রকার রসিদ দেওয়া হয়নি।
এদিকে গত বুধবার বিদ্যালয় থেকে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করে পরীক্ষার্থী আশরাফ। বৃহস্পতিবার সকালে এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য সকাল ৯টায় বাড়ি থেকে ধর্মপাশা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে গিয়ে দেখে আসন বিন্যাসে তার রোল নম্বর নেই। পরে প্রবেশপত্রে দেখে যে বিশেষ পরীক্ষার্থী হিসেবে শুধুমাত্র গণিত বিষয়ে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে সে।
আশরাফ উদ্দিন জানায়, বিষয়টি জানতে সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে প্রধান শিক্ষকের কাছে গেলে প্রধান শিক্ষক কোনো সদুত্তর না দিয়ে তাকে বিদ্যালয়ে থেকে বের করে দেন। পরে ওইদিন দুপুর দুইটার দিকে বিষয়টি লিখিতভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানায় সে।
প্রধান শিক্ষক আবদুল মালেক খান দাবি করেছেন, ওই পরীক্ষার্থী ফরম পূরণের জন্য তাঁর কাছে কোন টাকা দেয়নি। শ্রেণি শিক্ষকেরা ফরম পূরণের দায়িত্বে ছিলেন। অনলাইনে ফরম পূরণ করা হয়েছে। শিক্ষাবোর্ডের ওয়েবসাইট অনুযায়ী এক বিষয়ে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য প্রবেশপত্র এসেছে। পরীক্ষা শুরু হওয়ায় ওই শিক্ষার্থীকে কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মামুন খন্দকার বলেন, ‘এ ব্যাপারে একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।’