ধর্মপাশায় স্কুল ছাত্রীর ওপর হামলা গ্রেপ্তার ১

ধর্মপাশা প্রতিনিধি
ধর্মপাশায় ফারজানা আক্তার নামের এক স্কুল ছাত্রীর ওপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ওই স্কুল ছাত্রী উপজেলার সদর ইউনিয়নের ধর্মপাশা গ্রামের পশ্চিমপাড়া এলাকার কাজিম উদ্দিনের মেয়ে ও ধর্মপাশা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনায় গত বুধবার সকালে ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে অভিযুক্ত তিনজনের নাম উল্লেখ করে ধর্মপাশা থানায় মামলা করেছেন। পরে ওইদিন রাতেই পুলিশ আবু কাওসার নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে।
জানা যায়, ফারজানা আক্তারের পরিবারের লোকজনের সাথে একই গ্রামের প্রতিবেশি আনু মিয়ার পারিবারিক দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। গত রোববার বিকেলে ফারজানা আক্তার তাদের বাড়ি সংলগ্ন ধান শুকানোর খলা থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে জইন উদ্দিনের বাড়ির পাশে আনু মিয়া ও তার স্ত্রী কুলসুমা বেগম, ছেলে আবু কাওসার ফারজানার ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীদের কিল ঘুষিতে ফারজানা আক্তার অজ্ঞান হয়ে যায়। পরে হামলাকারীরা তাকে সড়কের পাশে ঝোপে ফেলে রেখে চলে যায়। কিছুক্ষণ পর নূরুন্নাহার নামের এক নারী ফারজানাকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পেয়ে ফারজানার পরিবারের লোকজনকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন ফারজানাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। বিষয়টি স্থানীয়ভাবে সালিশের মাধ্যমে নিষ্পত্তি করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু বিষয়টি নিষ্পত্তি না হওয়ায় ছাত্রীর বাবা কাজিম উদ্দিন গত বুধবার অভিযুক্তদের আসামী করে থানায় মামলা করেন।
ধর্মপাশা থানার এসআই জাহাঙ্গীর হোসাইন বলেন, এ ঘটনায় থানা মামলা হয়েছে। আবু কাওসার নামের একজনে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।