ধর্মপাশায় হিজল-করচ গাছের ডালপালা কেটে নিল দুর্বৃত্তরা

এনামুল হক, ধর্মপাশা
ধর্মপাশা উপজেলার পাইকুরাইটি ইউনিয়নের চকিয়াচাপুর গ্রামের খিলাকান্দা নামক স্থানে অবস্থিত একটি সরকারি হিজল করচ বাগানের সবকটি গাছের ডালপালা কেটে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। এ ঘটনায় চকিয়াচাপুর গ্রামের মৃত মত্বব আলীর ছেলে মঞ্জু মিয়া ও তার দুই ছেলে সোনাকুলি এবং চানকুলি মিয়ার জড়িত থাকার সত্যতা মিলেছে। বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে বৃহস্পতিবার বাদশাগঞ্জ ভূমি কার্যালয়ের ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা মোহাম্মদ এমদাদ মিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত প্রতিবেদন দাখিল করেছেন। এতে সরকারি লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলেও তিনি তার প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছেন। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কান্তি চক্রবর্তী জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রতিবেদনটি ধর্মপাশা থানার ওসির কাছে পঠিয়েছেন।
জানা যায়, ২৬ একর আয়তনের এ হিজল করচ বাগানটিতে ১১৯টি গাছ রয়েছে। ২০১৩ সালের ২৪ জানুয়ারি এ হিজল করচ বাগানটি সরকারি তালিকায় অন্তর্ভূক্ত হয়। কিন্তু গত শুক্রবার থেকে মঞ্জু মিয়া ও তার দুই ছেলে কয়েকজন শ্রমিক নিয়োগ করে এ বাগানের হিজল করচ গাছগুলোর ডালপালা কেটে নিয়ে যাওয়া শুরু করে। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানার পর তিনি তদন্তের জন্য বাদশাগঞ্জ ভূমি কার্যালয়ের সহকারি ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা মোহাম্মদ এমদাদ মিয়াকে মৌখিকভাবে নির্দেশ দেন। গত বুধবার মোহাম্মদ এমদাদ মিয়া হিজল করচ বাগানটি সরোজমিনে তদন্ত করে এতে মঞ্জু মিয়া ও তার দুই ছেলের জড়িত থাকার সত্যতা পান।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মঞ্জু মিয়া ও তার দুই ছেলের সাথে কোনোভাবেই যোগাযোগ করা যায় নি।
ধর্মপাশা থানার ওসি (তদন্ত) মো. শফিকুজ্জামান জানান, বিষয়টি তদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।