ধান কাটার শ্রমিক আসতে পথে কোন বাধা দেওয়া হবে না – পরিকল্পনা মন্ত্রী

জগন্নাথপুর অফিস
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন হাওরের ধান কাটার শ্রমিক আসতে পথে কোথাও বাধা দেওয়া হবে না। তিনি বৃহস্পতিবার রাত আটটায় সুনামগঞ্জের খবর কে বলেন,দেশের অন্যতম হাওরের জেলা সুনামগঞ্জ। বোরো ফসলের ওপর এ জেলা নির্ভরশীল। তাই ধান কাটার এই মৌসুমে দেশের বিভিন্ন স্হান থেকে শ্রমিকরা যাতে নিবিঘ্নে আসতে পারে সেজন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের সাথে আমি কথা বলেছি। তিনি বলেন স্হানীয় শ্রমিকদেরকে ধান কাটায় অগ্রাধিকার দিতে হবে।আর বাহির থেকে যেসব শ্রমিক আসবে তাদেরকে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে সর্তকতার সহিত কাজে লাগাতে হবে। এসব শ্রমিকদেরকে প্রয়োজন বন্ধ থাকা স্কুলে থাকার ব্যবস্হা করা যেতে পারে। তিনি করোনাভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিধি বিধান গুলো মেনে সবাইকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হতে আহ্বান জানান। মন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমের দুর্যোগময় মুহূর্তে সরকার জনগণের পাশে আছে। সরকারি সহায়তাগুলো যথাযথভাবে পৌঁছে দিতে তিনি সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান।
সুনামগঞ্জের কৃষকরা যাতে নির্বিঘ্নে বোরো ফসল ঘরে তুলতে পারেন, সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, স্থানীয় প্রশাসনকে এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে । শ্রমিক সংকটের কারণে বোরো ফসল ঘরে তুলতে যাতে কোনো ধরনের সমস্যা না হয় সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সব ধরনের পদক্ষেপ নেয়ার জন্যে জেলার উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দিক নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী।
উল্লেখ্য করোনাভাইরাসের কারণে পরিবহন ব্যবস্হা বন্ধ থাকায় সুনামগঞ্জে ধান কাটার শ্রমিক সংকটে কৃষকরা দুশ্চিন্তায় ভূগছিলেন।পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানের নির্দেশনায় কৃষকদের দুশ্চিন্তা দুর হলো।