ধামাইল উৎসবের উদ্বোধন

আসাদ মনি
আন্তর্জাতিক রাধারমণ পরিষদের আয়োজনে দুই দিনব্যাপী ধামাইল উৎসবের উদ্বোধন করেছেন সিলেটস্থ ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনের সেকেন্ড সেক্রেটারী শ্রী টি.জি রমেশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭ টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমির সহযোগিতায় জেলা শিল্পকলা একাডেমির হাসন রাজা মিলনায়তনে প্রধান অতিথি হিসাবে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জলনের মাধ্যমে উৎসবের উদ্বোধন করেন তিনি।
তিনি বলেন, বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক রাজধানী সুনামগঞ্জে এসে গর্বিত বোধ করছি। বাংলাদেশ ও ভারতে যৌথভাবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দুই দেশের মেলবন্ধন আরো দৃঢ় হয়। সুনামগঞ্জ যেহেতু সাংস্কৃতিক রাজধানী, তাই আমরা চেষ্টা করবো, সামনে ভারত বাংলাদেশের যৌথ সাংস্কৃতিক প্রোগ্রাম সুনামগঞ্জে আয়োজন করতে।
আন্তর্জাতিক রাধারমন পরিষদের সভাপতি ডি. চৌধুরী অসিত’র সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, জেলা উদীচীর সভাপতি শীলা রায়, শিক্ষাবিদ পরিমল কান্তি দে, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সহসভাপতি প্রদীপ পাল নিতাই, সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি পঙ্কজ কান্তি দে ও দৈনিক প্রথম আলোর স্টাফ রিপোর্টার খলিল রহমান। আন্তর্জাতিক রাধারমণ পরিষদের সভাপতি ডি. চৌধুরী অসিত জানান, দুই দিনের উৎসব উৎসর্গ করা হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অমর স্মৃতির উদ্দেশ্যে।
জেলা শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার আহমেদ মঞ্জুরুল হক পাবেল’র সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন-
জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক ও আন্তর্জাতিক রাধারমণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শামছুল আবেদীন।
অনুষ্ঠানে একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রবীণ লোকসংগীত শিল্পী সুষমা দাশ ও বিশিষ্ট লোক সংগীত শিল্পী কৃষ্ণ চন্দ কে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হয়। এরপর শুরু হয় ধামাইল পরিবেশনা।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বৈষ্ণব রাধারমণ দত্ত কি শুধু ধামাইল গান ও নৃত্যের প্রবর্তক নন। তিনি দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি, স্বদেশ চেতনা, অর্থনৈতিক ও নৈতিক অধ:পতন সম্পর্কেও সচেতন ছিলেন। এর প্রমাণ পাওয়া যায় রাধারমণের ‘দেখলাম দেশের এই দুর্দশা, ঘরে ঘরে চুরের বাসা’। এরকম আরো অনেক রচনা ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে তার । ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা এইসব রচনাকে সর্বসাধারণের মাঝে তুলে ধরতে পারলেই অনুষ্ঠানের স্বার্থকতা।
দুই দিনব্যাপী উৎসবে সুনামগঞ্জ নৃত্যাঙ্গন, বুলবুল সংগীত নিকেতন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা শিল্পকলা একাডেমি, জগন্নাথপুর আন্তর্জাতিক রাধারমণ পরিষদ ধামাইল পরিবেশন করে।
অনুষ্ঠানের শুরুতে বাউল সুরুজ মিয়া স্মরণে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।