নতুন গ্রিড স্থাপনের পরও কেন এত বিদ্যুৎ বিভ্রাট?

ওয়েজখালিতে স্থাপিত বিদ্যুতের নতুন গ্রিডলাইন গত সপ্তাহে চালু করা হয়েছে। এই গ্রিডলাইন চালুর পর বিদ্যুৎগ্রাহকরা সংগত কারণেই আশা করেছিলেন অসহনীয় বিদ্যুৎ দুর্ভোগ থেকে তারা মুক্তি পাবেন। কিন্তু নতুন গ্রিড লাইন চালুর প্রথম সপ্তাহের অভিজ্ঞতা নিতান্তই হতাশাজনক। গত কয়েকদিন ধরে শহরে প্রতিদিন অসংখ্যবার বিদ্যুতের আসা যাওয়ার ভেলকিবাজি চলছে। কোন ঝড় নেই যে কোথাও বিদ্যুতের খুঁটি উল্টে পড়বে অথবা তার ছিড়ে যাবে। তারপরও যখন তখন বিদ্যুৎ চলে যাচ্ছে। কয়েক মিনিট থেকে কয়েক ঘণ্টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ থাকছে না শহরে। এতদিন শহরে কোন বিদ্যুৎ বিপর্যয় ঘটলে বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে বলা হতো ছাতকের সঞ্চালন লাইনে সমস্যা থাকার কথা। তখন ওয়েজখালির নতুন গ্রিড স্টেশন চালু হলে এই ধরনের বিড়ম্বনা থাকবে না বলে বিদ্যুতের কর্তাব্যক্তিরা বেশ বড় গলায় বলতেন। কিন্তু এখন যখন ওয়েজখালি গ্রিড স্টেশনেই জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ সঞ্চালন শুরু হয়েছে তখন কেন শহরব্যাপী এত ঘন ঘন বিদ্যুৎ বিপর্যয়? এই প্রশ্নের উত্তরে বিদ্যুতের দায়িত্বশীলরা অগ্রহণযোগ্য জবাব দিচ্ছেন। এতে করে সরকারের সবচাইতে সফলতার জায়গা বিদ্যুৎ সেক্টরের প্রতি মানুষের মনে বিরূপ মনোভাব তৈরি হচ্ছে।
যেকোন নুতন জিনিস থেকে যদি সুফল পাওয়া না যায় তাহলে সেটিকে কল্যাণকর বলার অবকাশ থাকে না। ওয়েজখালি গ্রিড স্টেশনটি চালু হওয়ায় তাই আপাতত কারও মনে তেমন কোন উচ্ছ্বাস নেই। অথচ এই ক’দিনে ভোগান্তিহীন বিদ্যুৎ সঞ্চালন নিশ্চিত করতে পারলে জনমনে নতুন এই মূল্যবান স্থাপনাটি নিয়ে একধরনের ইতিবাচক ধারণা তৈরি হতো। কিন্তু বিদ্যুৎ ব্যবস্থাপকদের অভ্যন্তরীণ সঞ্চালন লাইন ঠিক রাখতে ব্যর্থতার কারণে এই বৃহৎ স্টেশনের কোন সুফল ভোগ করতে পারছে না মানুষ।
দেশে এখন চাহিদার তুলনায় বিদ্যুৎ উৎপাদনের কোন ঘাটতি নেই। পুরো জেলায় বিদ্যুতের যে পরিমাণ চাহিদা, জাতীয় গ্রিড থেকে ততটুকুই সরবরাহ করা হচ্ছে। অন্যান্য বহু জায়গার মতো সরকারের বিদ্যুৎ খাতে এই সফলতাও অনন্য। বিদ্যুৎ বিড়ম্বনার ভয়াবহ অবস্থা আমরা বিগত সরকারগুলোর আমলে হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছি। তখন চাহিদার তুলনায় বিদ্যুৎ সরবরাহের ঘাটতি ছিল প্রকট। তখন বর্তমান সময়ের মতো গ্রাম বাংলার আনাচে কানাচে জালের মতো এত বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনও বিস্তৃত ছিল না। অর্থাৎ হ্রাসকৃত বিদ্যুৎ চাহিদাও সেই সরকারগুলো মিটাতে পারে নি। আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে প্রতিদিনই দেশে বিদ্যুতের আওতাভূক্ত এলাকা বাড়ছে। বাড়ছে বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীর সংখ্যা। এই সরকারের ঘোষণা সারা দেশকে বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত করা। এই ঘোষণাকে সামনে রেখে বিদ্যুৎ উৎপাদনের বিষয়েও সরকারের বহুমুখী পদক্ষেপ একইসাথে চলমান থাকায় বর্ধিত চাহিদার প্রেক্ষিতে এখন আর সরবরাহের ঘাটতি তৈরি হচ্ছে না। কিন্তু এত বড় সফলতার জায়গাটুকু এই জেলায় মাঠে মারা যাচ্ছে অভ্যন্তরীণ বিদ্যুৎ লাইনের যথাযথ ব্যবস্থাপনার অভাবে। এরই প্রতিফল হলো নতুন গ্রিড লাইন স্থাপনের পরও অসহনীয় বিদ্যুৎ বিভ্রাট।
আমরা আশা করব, খুব দ্রুত বিদ্যুৎ বিভাগ অভ্যন্তরীণ লাইনের সমস্যাগুলো কাটিয়ে উঠে নতুন গ্রিড স্টেশনের সুফল গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিতে সক্ষম হবেন।



আরো খবর