নরপশুরূপী চাচার কাণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার
সদর উপজেলার গৌরারং ইউনিয়নের দামপাড়া গ্রামে স্বামী পরিত্যক্তা এক সন্তানের জননী (২৫) কে ধর্ষণ করেছে গ্রামের দূর সম্পর্কের নরপশু চাচা। গত মঙ্গলবার রাতে দামপাড়া গ্রামে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ধর্ষক সুহেল মিয়া (২৮) দামপাড়া গ্রামের বাসিন্দা গোলাম মোস্তাফার ছেলে।
এঘটনায় গতকাল বুধবার সকালে ধর্ষক সুহেল মিয়ার বিরুদ্ধে সদর থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন নির্যাতিতা ওই নারী। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং ওই নারীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে।
নির্যাতনের শিকার ওই নারীর স্বজনরা জানান, মঙ্গলবার রাতে বাবার বসতঘরের বারান্দায় দাঁড়িয়ে মোবাইল ফোনে কথা বলছিল ওই নারী। এ সময় গ্রামের প্রতিবেশী আত্মীয় সম্পর্কে চাচা সুহেল মিয়া (২৬) তাকে মুখ চেপে ধরে বাড়ির পাশ্ববর্তী মোকামের পাশের গভীর জঙ্গলে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় ওই নারী চিৎকার করতে চাইলে তাকে খুন করে পাশের খালে ফেলে দেয়ার হুমকি দেয় সুহেল। পরে রাতেই তিনি স্বজনদেরকে ঘটনাটি জানান।
ওই নারী জানান, তার স্বামী গত ৪ বছর ধরে নিখোঁজ রয়েছে। স্বামীকে হারানোর পর তিনি দামপাড়া গ্রামের বাবার বাড়িতে বসবাস করছেন। তার এক ছেলে সন্তান রয়েছে।
এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সুনামগঞ্জ থানার এসআই একেএম জালাল উদ্দিন বলেন, ‘দূর সম্পর্কের চাচা অভিযুক্ত সুহেল মিয়ার বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করেছেন স্বামী পরিত্যক্তা ওই নারী। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ধর্ষণের প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে। ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ওই নারীকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সুহেল মিয়াকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ’