নির্মিত হচ্ছে ১০ নতুন বিদ্যালয় ভবন

জগন্নাথপুর অফিস
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম. এ. মান্নান এমপির প্রচেষ্টায় জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার ১০ টি প্রতিষ্ঠানে ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে চারতলা বিশিষ্ট নতুন বিদ্যালয় ভবন হচ্ছে।
৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪ তলা বিশিষ্ট একাডেমিক এসব ভবন চূড়ান্ত অনুমোদন লাভ করেছে। শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর অচিরেই দরপত্র আহ্বানের মাধ্যমে কাজ শুরু করবে।
অনুমোদনপ্রাপ্ত ভবনগুলো হচ্ছে জগন্নাথপুর উপজেলার কেশবপুর উচ্চ বিদ্যালয়, পাইলগাঁও বিএন উচ্চ বিদ্যালয়, আটপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়, ষড়পল্লী উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ ও সাজেদা খানম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার জয়সিদ্ধি বসিয়াখাউরি বড়মোহা উচ্চ বিদ্যালয়, পঞ্চগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়, আব্দুল গফুর উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ পূর্ব পাগলা উচ্চ বিদ্যালয় ও জয়কলস উজানীগাঁও রশীদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়।
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব এপিএস আবুল হাসনাত এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এমপির প্রচেষ্টায় জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জের আরো ১০ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে নতুন একাডেমিক ভবন নির্মাণ প্রকল্প অনুৃমোদিত হয়েছে। শিক্ষা প্রকৌশল বিভাগ ভবনের কাজ বাস্তবায়নে কাজ শুরু করবে।
এদিকে জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জের আরো ১০ টি চারতলা ভবন অনুমোদন লাভ করায় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন বিদ্যালয়ের সাথে সংশ্লিষ্টরা।
জগন্নাথপুর উপজেলার কেশবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফররুখ আহমদ বলেন, ‘শিক্ষাবান্ধন মন্ত্রী এম এ মান্নানের প্রচেষ্টায় আমাদের বিদ্যালয়ে চারতলা একাডেমিক ভবন অনুমোদিত হওয়ায় আমরা কৃতজ্ঞ।’
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব বলেন, ‘অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান একজন আলোকিত শিক্ষাবান্ধব ব্যক্তি। তাঁর মতো শিক্ষানুরাগী মন্ত্রী থাকায় জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সুরম্য ভবন হচ্ছে। উন্নয়নের আলোয় উদ্ভাসিত হচ্ছে জগন্নাথপুর ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ।’