নীলপুর বাজারে প্রস্তাবিত সেতুর জায়গা পরিদর্শন

স্টাফ রিপোর্টার
এলজিইডির সিলেট বিভাগীয় প্রকল্প পরিচালক নীলপুর বাজার এলাকায় মরা সুরমা নদীর উপর প্রস্তাবিত সেতু নির্মাণ এলাকা পরিদর্শন করেছেন বিভাগীয় প্রকল্প পরিচালক আলী হোসেন চৌধুরী। বুধবার বিকালে লক্ষণশ্রী ও কাঠইর ইউনিয়নের মধ্যস্থলে অবস্থিত মরা সুরমা নদীর এলাকার বাসিন্দাদের সাথে কথা বলেন তিনি।
এ সময় এলাকাবাসী জানান, তাঁদের দীর্ঘদিনে প্রত্যাশা এই মরা সুরমার উপর সেতু নির্মাণের। কিন্তু শুধুই সেতু নির্মাণের আশ্বাস পেয়ে আসছেন তাঁরা। সেতু নির্মাণ হলে এই অঞ্চলের দুই ইউনিয়নের ২০টি গ্রামের প্রায় বিশ হাজার মানুষ প্রতিদিন শহরের সাথে যোগাযোগ নিশ্চিত হবে বলে জানান।
স্থানীয়রা আরও জানান, সেতু নির্মাণের স্থান নিয়ে দুই পক্ষের দ্বন্দ্বের কারণে বিলম্ব হচ্ছিল। এবার আমাদের মধ্যে কোনো দ্বন্দ্ব নেই। নীলপুর বাজার এলাকায় সেতু নির্মাণ আমরা চাই। এমন দাবির প্রেক্ষিতে সিলেটের বিভাগীয় প্রকল্প পরিচালক আলী হোসেন চৌধুরী আশ্বস্থ করেন এবং এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলীকে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ দেন।
মরা সুরমায় সেতু নির্মাণ হলে লক্ষণশ্রী ও কাঠইর ইউনিয়নের নীলপুর, রাবারবাড়ি, তাজপুর, মাগুরা, এরালিয়া, বেতকোনো, উলুতুল, নোয়াগাঁও, শাখাইতি, কলাইয়া, ছোয়ারপাড়, বাহাদুরপুরসহ ২০টি গ্রামের মানুষের আসা-যাওয়া নিশ্চিত হবে।
এসময় উপস্থিত ইউপি সদস্য এলকাছ মিয়া, ফরিদ মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা ফজর আলী, কলাইয়া গ্রামের সমছু মিয়া, শংকু মিয়াসহ অনেকে সেতু নির্মাণের দাবি জানান।
পরে সিলেটের বিভাগীয় প্রকল্প পরিচালক আলী হোসেন চৌধুরী কলাইয়া গ্রামের হযরত সৈয়দ শাহনূর (রহ:) এর আধ্যাত্মিক সঙ্গিনী মন্দোধরি মাইজির মাজার পরিদর্শন করেন।