পাগলায় অগ্নিকাণ্ডে ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি

শান্তিগঞ্জ অফিস
শান্তিগঞ্জ উপজেলার পাগলা বাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় একটি মোবাইল ফোন ও কসমেটিকসের দোকান ভস্মিভূত হয়েছে। এতে প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন দোকান কর্তৃপক্ষ। বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় বাজারের মধ্যগলিতে জামান কমপ্লেক্সের ছামা টেলিকম এন্ড দাদি মা কসমেটিকস্’র দোকানে এই অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটে। পরে রাত ১২টায় শান্তিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিটের এক ঘন্টা প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এ ব্যাপারে শান্তিগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেছেন দোকান মালিক মো. সাফিউল ইসলাম সুসাদের বড় ভাই গণমাধ্যমকর্মী জামিউল ইসলাম তুরান।
সাধারণ ডায়রিতে উল্লেখ করা হয়, ছামা টেলিকমের অগ্নিকা-টি বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট অথবা মোবাইল চার্জারের কালেকশন থেকে হতে পারে। রাত সাড়ে ১১টার এই অগ্নিকা-ে দোকানে থাকা ২০টি অপপো ব্র্যান্ডের এন্ড্রোয়েড মোবাইল ফোন, ১৫টি রেডমি ব্র্যান্ডের মোবাইল ফোন, ১০টি আইটেল, ১৫টি সিম্ফনি, ১৫০টি বাটম ফোন, সকল ধরণের ফোনের চার্জার, ব্যাটারি, পাওয়ারব্যাংক, ক্যাচিং, মনিটরসহ সিসি ক্যামেরা, ফ্যানসহ আসবাবপত্র, প্রায় লক্ষাধিক টাকার কসমেটিক্স পণ্য ও নগদ ৪০ হাজার টাকাসহ প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, জামান কমপ্লেক্সের ছামা টেলিকম এন্ড কসমেটিক্সের দোকানটি আগুনে পুড়ে ভস্মিভূত হয়েছে। দোকানের কোনো কিছুই আর অবশিষ্ট নেই। মোবাইলের অগণিত পুড়া অংশ মাটিতে পড়ে আছে। কাঁচের ডেকোরেশনসহ সব ধরণের পণ্য পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। কসমেটিক্সের পুড়া অংশগুলো ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে। আক্ষেপ করছেন জামিউল ইসলাম তুরান।
তিনি আক্ষেপ করে বলেন, আমাদের পরিবারের বড় ধরণের একটা ক্ষতি হয়ে গেলো। এর আগে বন্যায় মৎস্য খামারের চারটি পুকুর তলিয়ে গিয়েছিলো। এসব ক্ষতি পুষিয়ে উঠা আমাদের জন্য কষ্টসাধ্য হবে। অগ্নিকা-ে দোকানে প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। আমি ক’দিন আগেও লক্ষাধিক টাকার কসমেটিক্স তুলেছিলাম। সব শেষ।
শান্তিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন মাস্টার জিসান রহমান নাবিল বলেন, আগুন লাগার খবর পাওয়ার সাথে সাথে রাত সাড়ে ১১টার দিকে আমরা পাগলা বাজারে গিয়ে একঘন্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছি।
শান্তিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ খালেদ চৌধুরী বলেন, অগ্নিকা-ের খবর পেয়ে রাতেই আমার ফোর্সসহ আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। ফায়ার সার্ভিসের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। এ ব্যাপারে জামিউল ইসলাম তুরান একটি সাধারণ ডায়রী করেছেন।