পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিপাতে পানি বাড়ছে

স্টাফ রিপোর্টার
৪ দিনের টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢল নামায় সুনামগঞ্জের নদী ও হাওরের পানি বাড়ছে। সুরমার পানি বিপদ সীমার ৪৮ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় এমন তথ্য দিয়েছে সুনামগঞ্জের পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষ। এ সময় পানির উচ্চতা ৭ দশমিক ২০ সে.মি. অতিক্রম করে ৭ দশমিক ৬৮ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। টানা বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় পানি বৃদ্ধির আশংকা রয়েছে। পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিপাতের কারণে নদী তীরবর্তী এলাকাসহ গ্রামাঞ্চলের বিভিন্ন অভ্যন্তরীণ সড়ক তলিয়ে যাওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে। তবে এই পানিবৃদ্ধিকে দায়িত্বশীল মহল থেকে এখনও বন্যা পরিস্থিতি হিসাবে বিবেচনা করা হচ্ছে না।
এদিকে আমাদের বিশ্বম্ভরপুর প্রতিনিধি জানান, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় গত কয়েক দিন যাবত অতি বৃষ্টিপাতে ও পাহাড়ী ঢলে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। খারাপ আবহাওয়ায় পানি বৃদ্ধিতে বন্যার আশংকা রয়েছে। পানি বৃদ্ধির ফলে এবং হাওরের ঢেউয়ে উপজেলা সদর থেকে বিশ্বম্ভরপুর বাজার পর্যন্ত জনগুরুত্বপূর্ণ ভাঙা রাস্তাটি মেরামত না করায় আরো ভেঙে যাচ্ছে। পানির বৃদ্ধির ফলে উপজেলা সদর কৃষ্ণনগর পূজা মন্দির প্রাঙ্গণের মাটি হাওরের ঢেউয়ে ভেঙে যাচ্ছে। বিশ্বম্ভরপুর-টু-তাহিরপুর এলজিইডির রাস্তায় শক্তিয়ারখলার নিকট ১০০ মিটার ব্রীজ সংলগ্ন অনেক জায়গা ডুবে গিয়ে যান চলাচল ও জনচলাচল বিচ্ছিন্ন রয়েছে। নৌকা দিয়ে জনসাধারণকে চলাচল করতে হচ্ছে। পানি বৃদ্ধির ফলে উপজেলা সদর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এবং রাস্তায় পানি উঠেছে।