পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ্ এমপির পক্ষে ৩০০টি অসচ্ছল পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা

করোনা সৃষ্ট সংকটে অসচ্ছল পরিবারের মাঝে সুনামগঞ্জ সদর-বিশ^ম্ভরপুর আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ্ এমপির পক্ষে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কাঠইর ইউনিয়নে ৩০০টি অসচ্ছল পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়। বুধবার সকাল থেকে জাতীয় পার্টির নেতা কর্মীরা অসহায় হতদরিদ্র মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই খাদ্য সহায়তা বিতরণ করে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন,সদর উপজেলা জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক মেনর,প্রচার সম্পাদক সেলিম আহমদ,ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির নেতা জয়নাল আবেদীন বাকশাল প্রমুখ।
উল্লেখ্য-৩০০শ অসচ্ছল পরিবারের মাঝে চাউল ৫ কেজি,আলু ২ কেজি,তেল ১ লিটার ও লবন ৫০০ গ্রাম প্রদান করা হয়েছে।
করোনা ভাইরাস আতংঙ্কে যখন নি¤œআয়ের মানুষজন ঘরবন্দী হয়ে খাদ্য সংকটে ভুগছিলেন সেই সময়টাতে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে সুনামগঞ্জ পৌর এলাকায় জেলা পরিষদের উদ্যোগে এক হাজার পরিবারের মধ্যে ১০ কেজি চাল,১কেজি ডাল,২কেজি আলু সহ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।
এদিকে সকালে সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের প্রাঙ্গনে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের প্রধান নিবার্হী কর্মকর্তা মোহাম্মদ এমরান হোসেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদের হিসাব রক্ষক বিমলেন্দু রায়, জেলা ছাত্রলীগ নেতা মিল্টন পূরকায়স্থ,অফিস সহকারী কপিল কিষণ তালুকদার,অফিস সহায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব প্রমুখ।
খাদ্য সহায়তা প্রদানকালে জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী ও স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ এমরান হোসেন বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহবাণে সাড়া দিয়ে করোনা ভাইরাসে সৃষ্ট সংকটে প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে আমরা যথারীতি কর্মস্থলে উপস্থিত থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিজেদের সাধ্যমতো ভূক্তভোগী মানুষের পাশে দাড়ানোর চেষ্টা করছি।
তিনি আরো বলেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ নুরুল হুদা মুকুট সুনামগঞ্জ জেলার মানুষের জন্য অত্যন্ত আন্তরিক রয়েছেন বিধায় জেলা পরিষদ সবসময় যেকোন দূর্যোগে দূর্বিপাকে মানুষের সেবায় কল্যাণমূলক পদক্ষেপ গ্রহন করে আসছে। খাদ্য সহায়তা প্রদানের পাশাপাশি উপস্থিত অসচ্ছল নারী পুরুষের মাঝে তারা মাস্ক ও করোনা সচেতনতামূলক লিফলেটও প্রদান করেন।
এছাড়াও আমরা অসহায় মানুষদের তালিকা তৈরি করেছি তাদের খাদ্য সামগ্রী তাদের বাড়ি পৌছে দেওয়া হয়েছে।

অপরদিকে করোনা পরিস্থিতিতে মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছে কর্ণিকার মুক্ত স্কাউটস গ্রুপ’র সদস্যরা। বুধবার (১ এপ্রিল) পৌর শহরের বিভিন্ন এলাকায় শতাধিক কর্মজীবী ও দরিদ্র মানুষের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করেছে সংগঠনটি।
এসময় উপস্থিত ছিলেন কর্ণিকার মুক্ত স্কাউটস গ্রুপ’র সহ-সভাপতি রুহুল আমীন,সাধারণ সম্পাদক মো.বুরহান উদ্দীন,জেলা রোভার’র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো.রায়হান উদ্দীন,সিনিয়র রোভার মেট প্রতিনিধি দুর্জয় দত্ত পুরকায়স্থ,স্কাউট গ্রুপ’র রোভার মেট অমিত দাস গুপ্ত,মো. লুৎফুর রহমান লাবিব, জাকারিয়া ইমন,ইয়াছির আহমেদ জাওয়াদ, অভিজিৎ পাল,মো.সাজিদুর রহমান সাজু,মো.সানোয়ার আহমেদ,রিমন পাল,মারুফ আল মারজান,বিজয় দাস,রিফাত আহমেদ শান্ত,আলী ইমরান মুরাদ,সামসুল ইসলাম,হাসিবুর রহমান রিফাত,আসিফ মিয়া প্রমুখ।
স্কাউট গ্রুপ’র সহ-সভাপতি রুহুল আমীন জানান,সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কর্মজীবী ও দরিদ্র মানুষদের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। এ ধরণের সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।
সাধারণ সম্পাদক মো.বুরহান উদ্দীন বলেন আমরা সবাই যদি সচেতন হই, আর যার যার অবস্থান থেকে অন্যকে সচেতন করি তাহলে যেকোনো মহামারি থেকে বাংলাদেশের জনগণকে রক্ষা করা সম্ভব।