পূর্ব ইব্রাহীমপুর গ্রামে ইউপি নির্বাচনের সভা

স্টাফ রিপোর্টার
সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব ইব্রাহীমপুর গ্রামে নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার রাত ৮টায় পূর্ব ইব্রাহীমপুর জামে মসজিদের সামনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সম্ভাব্য ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও নারী সদস্যরা অংশ নেন।
সভায় সভাপতিত্ব করেন সাবেক ইউপি সদস্য ও গ্রামের সালিশ ব্যক্তিত্ব মো. নবী হোসেন পরশ। প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন বিটিভি’র সঙ্গীত পরিচালক মো. আপ্তাব মিয়া, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সৈয়দুর রহমান, জেলা জাসদের সভাপতি এনামুজ্জামান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রুহুল আমিন তুহিন, প্রবীণ ব্যক্তি সাজাউর রহমান প্রমুখ।
নির্বাচনী সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে বিটিভি’র সঙ্গীত পরিচালক মো. আপ্তাব মিয়া উপস্থিত সকলের সম্মতিক্রমে সম্ভাব্য ইউপি সদস্য প্রার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, যারা ইউপি সদস্য হিসাবে প্রার্থীতা ঘোষণা দিয়েছেন, তারা সবাই যোগ্য প্রার্থী। কিন্তু আমাদের এই ২ নম্বর ওয়ার্ড দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে অবহেলিত। গ্রামের উন্নয়নের স্বার্থে এই ওয়ার্ডে ভোটের প্রতিযোগিতায় একজনকেই পাশ করতে হবে। তাই এমন একজনকেই আমাদের মনোনীত করতে হবে। এই প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত করতে সকলে মিলে নি:স্বার্থ ও আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে। এ কথা শুনে সভায় উপস্থিত একাধিক সম্ভাব্য ইউপি সদস্য তাঁদের চিন্তাধারা পরিবর্তন করে এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে একক প্রার্থী মনোনয়নের সম্মতি দেন।
শুক্রবার রাতে এই নির্বাচনী সভায় অংশ নেন সুরমা ইউপি’র সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাড. নুর হোসেন, ২ নম্বর ওয়ার্ডের সম্ভাব্য ইউপি সদস্য মো. গিয়াস উদ্দিন ও মনু মিয়া, ১,২,৩ নম্বর ওয়ার্ডের সম্ভাব্য মহিলা সদস্য আঞ্জুরা বেগম ও সাকেরা বেগম। এসব প্রার্থী সভায় তাদের বক্তব্যে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডের যথাযথ উন্নয়ন ও সম্ভাবনার কথা তুলে ধরেন।
সভায় বক্তারা গরীব ও মেহনতি মানুষের জীবনমানের উন্নয়ন, রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন, বয়স্ক ভাতা, বিধাব ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা এবং ভিজিএফ ও ভিজিটি’র চাউল যোগ্য ব্যক্তির মধ্যে বণ্টন নিশ্চিতকরণের দাবি জানান।