প্রধানমন্ত্রী হাওরবাসীর জন্য আন্তরিক -এমএ মান্নান

স্টাফ রিপোর্টার
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বলেছেন, ‘উন্নয়ন মেলার মাধ্যমে সরকার জনগণের জন্য কী কী করছে তাঁর চিত্র তুলে ধরা হয়েছে। এরফলে জনগণ ও সরকারের বাঁধন শক্ত হবে। আমাদের সরকারের উদ্দেশ্য হচ্ছে জনগণের সঙ্গে থাকা। বিশেষ করে দেশের খেটে খাওয়া মানুষ, যারা পরিশ্রম করে, নিজের ভাগ্য নির্ধারণ করেন। সরকারের সকল প্রচেষ্টা গ্রামের এসব মানুষের উন্নয়ন করা।’
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে সরকারী জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়ে মাঠে উন্নয়ন মেলার আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কামরুজ্জামানের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ- ১ আসনের সাংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য মতিউর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের মাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন, সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাশ, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিকী ভ্্ূইয়া, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক স্বপন কুমার সাহা প্রমুখ।
আলোচনা সভায় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান আরো বলেন, ‘এক সময় গ্রামের উন্নয়ন হতো না, এখন সরকারের প্রধান লক্ষ্য গ্রামের উন্নয়ন করা। সারা দেশে গ্রামে গ্রামে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। আগামী এপ্রিলের মধ্যে আমার নিজের নির্বাচনী আসন জগন্নাথপুর- দক্ষিণ সুনামগঞ্জের প্রতিটি গ্রামে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেবার কাজ শেষ হবে।’
তিনি বলেন,‘প্রধানমন্ত্রীর চোখে আধুনিক বাংলাদেশের স্বপ্ন, তিনি বলেছেন দেশে কোন সাকু থাকবে না, আমাদের ছেলেরা উচ্চ শিক্ষিত হবে, আকাশে উড়ে বেড়াবে।’
৯ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মাসেতুসহ সরকারের নানা কার্যক্রম তুলে ধরে তিনি বলেন,‘বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর হক রয়েছে, জনগণের সাহায্য পাওয়া, তাঁকে শক্তি দিয়ে সাহস দিয়ে দেশের মানুষ সহযোগিতা করলে এই দেশ বদলে যাবে।’
প্রধানমন্ত্রী হাওরবাসীর প্রতি অত্যন্ত আন্তরিক জানিয়ে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই বলেন, হাওরের জন্য বেশি বেশি প্রকল্প নিয়ে আসেন।’ মন্ত্রী আগামী নির্বাচনে সকলকে নৌকায় ভোট দেবার আহ্বান জানিয়ে বলেন ,‘ উন্নয়নের ধারা চলমান রাখতে নৌকার বিকল্প নেই।’
আলোচনা সভার আগে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান উন্নয়ন মেলার স্টলগুলো পরির্দশন করেন।