প্রায় পাঁচ লক্ষ টাকার ভারতীয় পণ্যসহ আটক ৩

স্টাফ রিপোর্টার
সীমান্তে অভিযানে প্রায় পৌনে পাঁচ লক্ষ টাকার ভারতীয় মদ, গাঁজা, কয়লা, মোবাইল, বাংলাদেশী মাছ, নগদ টাকাসহ ৩ জন আসামীকে আটক করেছে ২৮ বিজিবি টিম।
জানা যায়, ডুলুরা বিওপির টহল দল রবিবার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের কাপনা থেকে ১২৬ কেজি বাংলাদেশী মাছ আটক করে।
বিরেন্দ্রনগর বিওপির টহল দল একই দিন তাহিরপুর উপজেলাধীন উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের সুন্দরবন থেকে ২০ কেজি ভারতীয় গাঁজা, সীমসহ ৩টি মোবাইল, বাংলাদেশী নগদ ৪ হাজার ২২০ টাকা এবং ৩ জন আসামী আটক করে। আটককৃত আসামীরা হলেন— হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলা ইগরতলী গ্রামের মৃত আব্দুল মনার পুত্র আনোয়ার আলী (৩০), একই গ্রামের মৃত আব্দুল হাসেমের পুত্র সাকিব মিয়া (২২) এবং খোরশেদ আলীর পুত্র নয়ন মিয়া (১৮)। চাঁনপুর বিওপির টহল দল বড়দল ইউনিয়নের বারেকটিলা থেকে ১৯ বোতল ভারতীয় মদ আটক করে। লাউরগড় বিওপির টহল দল বাধাঘাট ইউনিয়নের যাদুকাটা নদী থেকে ১ হাজার ৭০০ কেজি ভারতীয় কয়লা আটক করে। আশাউড়া বিওপির টহল দল সদর উপজেলাধীন রঙ্গারচর ইউনিয়নের পেচাকোনা থেকে ৪৬ বোতল ভারতীয় মদ আটক করে।
চিনাকান্দি বিওপির টহল দল সোমবার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলাধীন ধনপুর ইউনিয়নের ভাঙ্গারপাড় থেকে ৪৮ বোতল ভারতীয় মদ আটক করে। চাঁনপুর বিওপির টহল দল তাহিরপুর উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের বারেকটিলা থেকে ১১৮ বোতল ভারতীয় মদ আটক করে।
আটককৃত এসব পণ্যের মূল্য ৪ লক্ষ ৭২ হাজার ৭৮০ টাকা।
সুনামগঞ্জ ব্যাটালিয়ন ২৮ বিজিবি পরিচালক লে. ক. মো. মাহবুবুর রহমান পিবিজিএম জানান, আটককৃত ভারতীয় মদ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় এবং কয়লা ও বাংলাদেশী মাছ সুনামগঞ্জ শুল্ক কার্যালয়ে জমা করার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
উল্লেখ্য, আটককৃত ভারতীয় গাঁজা, সীম, মোবাইল এবং বাংলাদেশী টাকাসহ আসামী তাহিরপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়।