যানবাহন চলাচলে ঝুঁকি মানুষের ভোগান্তি চরমে

স্টাফ রিপোর্টার
শহরের বিভিন্ন স্থানে ফুটপাতের রাস্তা বন্ধ করে অস্থায়ী দোকানপাট গড়ে উঠেছে। এতে মূল রাস্তা সংকীর্ণ হয়ে পড়েছে। প্রতিনিয়ত ঘটে চলেছে দুর্ঘটনা। চলাচলে ঝুঁকি বেড়েছে পথচারীদের।
শহরের উকিলপাড়া পয়েন্ট থেকে শুরু করে ট্রাফিক পয়েন্ট পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে অস্থায়ী দোকানপাট গড়ে উঠেছে। শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনের সামনে, সরকারী জুবিলী হাইস্কুলের সামনে, সুনামগঞ্জ ঐতিহ্য যাদুঘরের সামনে, পুরাতন কোর্টের সামনে, সদর মডেল থানার সামনে, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরির সামনে, পৌর মার্কেটের সামনে, ট্রাফিক পয়েন্টে, জগন্নাথবাড়ি, মিউনিসিপ্যাল মার্কেটের উভয় পাশের্^, কালীবাড়ি পয়েন্টে, পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে আম, আনারস, কলাসহ অন্যান্য ফলের অস্থায়ী দোকান, সবজি ও মসলার দোকান গড়ে উঠেছে।
আবার স্থায়ী ব্যবসায়ীরা পৌরসভার নির্মিত ড্রেনের উপর পর্যন্ত মালামাল রেখে বন্ধ করে দিয়েছেন ফুটপাতের রাস্তা। ট্রাফিক পয়েন্ট এলাকায় ও পৌর মার্কেটের রাস্তার পাশে, মুক্তারপাড়ার মুখের সামনে, সুনামগঞ্জ চেম্বার কার্যালয়ের সামনে, হোটেল প্যালেসের সামনের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছেন স্থায়ী দোকানদারগণ।
পথচারী জসীম উদ্দিন ও দিলোয়ার হোসেন বলেন,‘শহরের বাজারে আসলে মানসিকভাবে দুশ্চিন্তায় থাকি। কোন সময় জানি গাড়ি নিজের উপর উঠে যায়। প্রতিনিয়ত টুকিটাকি ঘটনা ঘটে চলেছে।’
সিএনজি চালক শাহজাহান উদ্দিন বলেন,‘আরও কয়েকদিন পরে হয়তো শহরের রাস্তা-ঘাট বন্ধ হয়ে যাবে। আমরা আর গাড়ি চালাতে পারব না। রাস্তা যেভাবে সংকীর্ণ হতে চলেছে তাতে শহরে গাড়ির সংখ্যা যাই হউক, ফুটপাতের রাস্তা ক্লিয়ার থাকলে যানজট লাগবে না।’