ফেইসবুক প্রচারণায় সরব সমর্থকরা

স্টাফ রিপোর্টার
প্রায় ৫ হাজার নতুন ভোটার ২৯ মার্চের পৌরসভা উপ-নির্বাচনে প্রথম ভোট দেবেন। এঁদের অনেকেই প্রার্থীদের কর্মী বা সমর্থক। তারুণ্যের এই অংশ ফেইসবুক প্রচারণায় প্রতিদিনই যুক্ত হচ্ছেন। উপ-নির্বাচনের তিন প্রার্থীরই আলাদা ফেইসবুক আইডি খোলা হয়েছে। এই আইডিগুলোতে নিয়মিত প্রচারণার ছবি আপলোড হচ্ছে। আছে আবেগঘন ছবিও। প্রচার করা হচ্ছে নানা স্লোগানও।
আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নাদের বখ্ত’এর ফেইসবুক আইডি’র নাম ‘নাদের বখ্ত সমর্থক গোষ্ঠী’। এই আইডিতে প্রয়াত পৌর মেয়র নাদের বখ্ত’এর বড় ভাই আয়ুব বখ্ত জগলুল’এর কর্মজীবনের নানা ছবি সংযুক্ত করা হয়েছে। রয়েছে দলীয় প্রচারণাও। গত কয়েকদিনে এই আইডি থেকে যেসব আবেগঘন স্লোগান দেওয়া হয়েছে এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে-‘মুখে হাসি বুকে ব্যথা, নির্বাচনে আসতে হল ভেবে উন্নয়নের কথা’, ‘২৯ তারিখ সারাদিন- নৌকা মার্কায় ভোট দিন,’ ‘উন্নয়নে জগলুল ভাই-বাস্তবায়নে নাদের ভাই।’
দেওয়ান গণিউল সালাদীনের ফেইস বুক আইডির নাম-‘সালাদীন সমর্থক’। এই আইডিতে প্রয়াত পৌর চেয়ারম্যান কবি মমিনুল মউজদীনের কর্মজীবনের নানা ছবি আপলোড করা হয়েছে। গণিউল সালাদীনের নির্বাচনী প্রচারণা সংবলিত নানা পোস্টারও এখানে আপলোড করা হয়েছে। একটি পোস্টারে রয়েছে নানা স্লোগানও। এসব স্লোগানের মধ্যে রয়েছে- ‘নির্যাতনমূলক ট্যাক্স নয়, সালাদীনের হবে জয়,’ ‘এক রাস্তা খেলার মাঠ-বাকী রাস্তা সদরঘাট.’‘আর নয় বৈষম্য- বিজয় মোদের আসন্ন,’‘দিন বদলের ডাক এসেছে – পৌরবাসী জেগেছে,’ ‘হৃদয়ে মউজদীন-ভালবাসার সালাদীন,’‘ইনশাল্লাহ্ হবে জয়-সালাদীনের নিশ্চয়।’
বিএনপি মনোনীত প্রার্থী দেওয়ান সাজাউর রাজা চৌধুরী সুমনের-‘সুমন ভাই সমর্থক গোষ্ঠী’ নামে একটি ফেইসবুক আইডি খোলা হয়েছে।’ দেওয়ান সাজাউর রাজা চৌধুরী সুমনের একটি লিফলেট এই আইডিতে যুক্ত করা হয়েছে। রয়েছে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ছবিও। সমর্থকরা নানা স্লোগান প্রচার করছেন এই আইডি থেকে। স্লোগানের মধ্যে রয়েছে- ‘খালেদা জিয়ার সালাম নিন, ধানের শীষে ভোট দিন,’‘এই শহর আমার-আমি এই শহরের,’‘সুনামগঞ্জের মাটি-ধানের শীষের ঘাটি,’ ‘দেশনেত্রীর সালাম নিন-ধানের শীষে ভোট দিন।’ এমন স্লোগান। তরুণ ভোটারদের একটি অংশ প্রতিদিনই এই তিন আইডিতে লাইক, শেয়ার কিংবা স্ট্যাটাস দিয়ে সংযুক্ত হচ্ছেন।
জেলা নির্বাচন অফিসের একটি সূত্রে জানা গেছে, মৃত্যু জনিত কারণে, এলাকা ছেড়ে যাবার কারণে এবং অন্যত্র ভোট স্থানান্তরসহ নানা কারণে নতুন ভোটার তালিকায় সুনামগঞ্জ পৌরসভার ভোট কর্তৃন হয়েছে প্রায় তিন হাজার।’
নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আবদুল মোতালেব বলেছেন, ‘গত বছর ভোটার ছিল ৪০ হাজার ৩৭৪ জন, এর মধ্যে পুরুষ ২০ হাজার ৪১৯ এবং মহিলা ভোটার ছিলেন ১৯ হাজার ৯৫৫ জন। এবার মোট ভোটার ৪২ হাজার ৩২২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ২১ হাজার ১৪৯, নারী ২১ হাজার ১৭৩ জন।’ কিছু ভোট কর্তন হয়েছে, আবার নতুন ভোটার যুক্তও হয়েছে।
সুনামগঞ্জ পৌরসভায় সর্বশেষ ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর ভোট হয়। এ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মেয়র নির্বাচিত হন আয়ূব বখত জগলুল। তিনি পেয়েছিলেন ১৪ হাজার ৮৪৫ ভোট। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান গণিউল সালাদীন। তিনি পেয়েছিলেন ১০ হাজার ৪৮৬ ভোট। তৃতীয়স্থানে ছিলেন বিএনপির প্রার্থী মো. শেরগুল আহমেদ। তিনি পেয়েছিলেন ২ হাজার ৪১৪ ভোট।