বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ

স্টাফ রিপোর্টার
বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা ও স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতার্ষিকী ‘মুজিববর্ষ’ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকাল থেকে রাত অবধি নানা আয়োজন ছিল সরকারি বিভিন্ন দপ্তর, প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের। আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, বঙ্গবন্ধু না হলে বাংরাদেশ নামের জাতিরাষ্ট্রের জন্ম হত না, বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ।
ঐতিহ্য জাদুঘর প্রাঙ্গণে এই উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ৩০ টি গৃহহীন পরিবারের হাতে নতুন ঘরের চাবি এবং ২৫ জন মুক্তিযোদ্ধাকে বাড়ীর জমির কবুলিয়ত দলিল হস্তান্তর করা হয়।
বেলা সাড়ে ১১ টায় শহরের ঐতিহ্য জাদুঘর প্রাঙ্গণে গৃহহীনদের চাবি ও দলিল হস্তান্তর করা হয়। এই উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ।
সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসমিন রুমা’র সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মো. এমরান হোসেন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খায়রুল হুদা চপল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শরীফুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাশেদ ইকবাল চৌধুরী প্রমুখ।
আলোচনা সভা শেষে সদর উপজেলার পুরান লক্ষণশ্রীতে গুচ্ছগ্রাম-৩’এ নির্মিত ৩০ টি নতুন ঘরের চাবি ৩০ জন গৃহহীনকে ও ২৫ জন মুক্তিযোদ্ধাকে বাড়ী’র জমির কবুলিয়ত দলিল হস্তান্তর করা হয়।
এর আগে সকাল ৯ টায় সুনামগঞ্জ ঐতিহ্য জাদুঘর প্রাঙ্গণে নির্মিত জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা আওয়ামী লীগসহ অঙ্গসংগঠনসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ করেন।
পরে বেলুন উড়িয়ে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসের কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয় এবং জাতির পিতারসহ পরিবারের সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত এবং দেশ ও জাতির কল্যাণে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
সদর উপজেলা পরিষদ
সকালে সদর উপজেলা পরিষদের বঙ্গবন্ধু ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে দিবসের কর্মসূচীর সূচনা করে। পরে কেক কাটা, মিলাদ মাহফিলের মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ- ৪ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খায়রুল হুদা চপল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসমিন নাহার রুমা, ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. আবুল হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিগার সুলতানা কেয়া, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক খন্দকার মঞ্জুর আহমেদ, আসাদুজ্জামান সেন্টু, সদস্য নুরুল ইসলাম বজলু, সবুজ কান্তি দাস, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দীপঙ্কর কান্তি দে প্রমুখ।
সুনামগঞ্জ পৌর কলেজ
সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও সকাল ৯ টায় অধ্যক্ষ মো. শেরগুল আহমেদসহ কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা শোভাযাত্রা সহকারে সুনামগঞ্জ ঐতিহ্য জাদুঘরে স্থাপিত জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। বেলা সাড়ে ১১টায় শহরের ইকবাল নগরে অবস্থিত সুনামগঞ্জ পৌর কলেজের মূল ক্যাম্পাসে ১০০ টি গাছের চারা রোপন করা হয়।
প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্র
সুনামগঞ্জ প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্র আয়োজনে আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্রের কনসালটেন্ট (ফিজিওথেরাপি) ডা. মো. তানজিল হক’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ পরিচালক সুচিত্রা রায়, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আব্দুল আলিম, জেলা স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য সুবিমল চক্রবর্তী চন্দন, সুনামগঞ্জ অটিস্টিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুলের প্রধান শিক্ষক শাফায়াতুল হক চৌধুরী।
এছাড়াও জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলী দেয় জেলা যুবলীগ, কৃষক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ, সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড, জেলা কৃষক লীগ, সুনামগঞ্জ পৌরসভা, সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়, অটিস্টিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী স্কুল, জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ, বিয়াম ল্যাবরেটরী স্কুল, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক ও আমার বাড়ি আমার খামার প্রকল্প, উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরসহ সর্বস্তরের মানুষ।
কর্ণিকার মুক্ত স্কাউটস গ্রুপ
সকালে সুনামগঞ্জ ঐতিহ্য জাদুঘরে স্থাপিত জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করে কর্ণিকার মুক্ত স্কাউটস গ্রুপ। এসময় উপস্থিত ছিলেন সভাপতি দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মো. বুরহান উদ্দিন, জেলা রোভারের সিনিয়র রোভার মেট দুর্জয় দত্ত পুরকায়স্থ, কর্ণিকার মুক্ত স্কাউটস গ্রুপ’র সিনিয়র রোভার মেট এস. এ. তাহের আলী, রোভার অমিত দাস গুপ্ত, রিমন পাল, হুসাইন আহমদ রবিন, অলিউর রহমান মারুফ, রিফাত আহমেদ শান্ত, ছাদিকুর, জুবেল, জুনেদ, শুভ, রিফাত, আসিফ, সানোয়ার, সামসুল, জয়নাল, সৌরভ, রুমান, সাইমন, তাহমিদ, হৃদয়, ইমরান, নাহিদ, রবিন, শান্ত, মারুফ, গার্ল ইন রোভার তনুশ্রী দাশ, মনোয়ারা বেগম, তাহমিনা, আমেনা, বর্ষা, ফাহমিদা প্রমুখ।
স্যানক্রেড কমিউনিটি প্যারামেডিক ইন্সটিটিউট
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও কৃতি সিপিদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে শহরতলীর ধারারগাঁও এলাকায় এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে স্যানক্রেড কমিউনিটি প্যারামেডিক ইন্সটিটিউট।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন স্যানক্রেড কমিউনিটি প্যারামেডিক কোর্সের প্রিন্সিপাল পলাশ চিছাম, কোর্স কো-অর্ডিনেটর ডা. হোজাইফা মাহমুদ, শিক্ষক ডা. ফারজানা আলী, স্যানক্রেড হাসপাতালের ম্যানেজার মো. আমিনুল হক, দৈনিক সুনামগঞ্জের খবর’র যুগ্ম বার্তা সম্পাদক আকরাম উদ্দিন।
এছাড়াও বক্তব্য রাখেন আমরা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী জালাল উদ্দিন জাহান, প্যারামেডিক শিক্ষার্থী সৌরভ দাস, রুমা রানী দাস ও আপ্তাব উদ্দিন।
আলোচনা সভা শেষে কমিউনিটি প্যারামেডিক কোর্সে ভাল ফলাফলের জন্য মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, ইয়াসমিন আক্তার ও মুন্নি আক্তারকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। পরে লটারীসহ ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন ইভেন্টের বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিরা।
পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি
বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতি সুনামগঞ্জ জেলা শাখার আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সন্ধ্যায় সংগঠনের পৌরবিপণির কার্যালয়ে কেক কাটা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সুনামগঞ্জ শাখার সভাপতি মিন্টু রায়, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন প্রমুখ। পরে করোনাভাইরাসের সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়।