বন্যা দুর্গত ১লক্ষ ২০ হাজার

স্টাফ রিপোর্টার
জেলায় ১ লক্ষ ২০ হাজার মানুষ বন্যা দুর্গত। বন্যা দুর্গতদের জন্য বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় ২টি, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় ৬টি, দোয়ারাবাজার উপজেলায় ৩টি, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায় ৩টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে। দুর্গতদের ত্রাণ সামগ্রী বরাদ্দে কোন অনিয়ম মেনে নেয়া হবে না। অনিয়ম হলে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।
সোমবার বিকালে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম।
তিনি বলেন, জিআর নগদ ৯লক্ষ ৮০ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে, মজুদ আছে ৫লক্ষ ২০হাজার টাকা। জিআর চাল বিতরণ করা হয়েছে ২শত ৭৫টন, মজুদ রয়েছে ৩শত ১৫ টন। এছাড়াও ৭হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।
তিনি বলেন, ১২২টি মেডিকেল টিম বন্যা দুর্গত এলাকায় কাজ করছে। ৫শত তাবু মজুদ আছে। বন্যায় প্রাথমিক ৩৫৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ১১৯ টি উচ্চ বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রয়েছে।
বক্তব্যে তিনি বলেন, আরো ৫ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বরাদ্দের জন্য দুযোর্গ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. হারুন অর রশীদ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মোকলেছুর রহমান, এনডিসি মিল্টন চন্দ্র পাল।