বাংলাদেশে দারিদ্র পুরোপুরি কমেনি : পরিকল্পনামন্ত্রী

সু.খবর ডেস্ক
সমাজে প্রতিষ্ঠিত অবিচারের কারণে প্রতিবন্ধীরা সামাজিকভাবে পিছিয়ে রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীদের কোনো দোষ নেই, নানা কারণে মানুষ প্রতিবন্ধী হতে পারে। তবে সমাজে প্রতিষ্ঠিত অবিচারের কারণে তারা আমাদের থেকে একটু পিছিয়ে আছে। তাদের পাশে দাঁড়ানো স্নেহের হাত বাড়িয়ে দেয়া আমাদের নৈতিক দায়িত্ব।
শুক্রবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের ফ্লিম আর্কাইভ অডিটরিয়ামে এপেক্স বাংলাদেশের ‘সেবা মাস উদ্বোধন ও ক্লাবের সেবা পরিচালক সম্মেলনে’ প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ একটি পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, সারা বিশ্বে বাংলাদেশ এখন পরিচিতি পাচ্ছে। বাংলাদেশে দারিদ্র কমছে কিন্তু দারিদ্র এখনো আছে। বাংলাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা বিদ্যুৎ, স্বাস্থ্যসেবা কৃষি প্রতিটি ক্ষেত্রে আমরা যথেষ্ট অর্জন করেছি আরো অনেক যেতে হবে।
তিনি আরো বলেন, ‘লাল সবুজকে অর্জন করতে গিয়ে লক্ষ লক্ষ মানুষের রক্ত-প্রাণ গিয়েছে। এটা আমরা সব সময় স্মরণ করি। তাদের আত্মত্যাগের কারণেই আমরা আজ মাথা উচু করে দাঁড়াতে পারছি। মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমাদের দেশে যে ঐক্য প্রতিষ্ঠিত করেছি সেই ঐক্য যেন সবসময় বজায় থাকে সে জন্য কাজ করতে হবে। ’
এ সময় এপেক্স ক্লাবের সদস্যদের উদ্দেশ্য করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘সামাজিক এই কাজটা ১৯৩১ সালে অস্ট্রেলিয়ায় আপনাদের পূর্ব-পুরুষরা শুরু করেছিল। এরপর ১৯৬১ সালে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে এটা শুরু হয়েছিল আজকে বাংলাদেশে এটি প্রতিষ্ঠিত। কত অঞ্চলে এটি (এপেক্স ক্লাব) ছড়িয়ে পড়েছে। এই যোগাযোগের ফলে আপনাদের মধ্যে বন্ধন গভীর হচ্ছে। সঙ্গে সঙ্গে বাঙালির বন্ধন বাংলাদেশের বন্ধন আরো গভীর হচ্ছে। যেহেতু আপনারা সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছেন সুধু সমাজ সেবা করলে হবে না। সার্বিকভাবে জাতীয় জীবন সম্পর্কেও আপনাকে চিন্তা করতে হবে। জাতীয় জীবন সম্পর্কে শুধু রাজনৈতিক দিক নিয়ে চিন্তা করবেন সেটা সঠিক নয়।
সেবা মাস উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক কবির আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের মহাপরিচালক নিজামূল কবীর, এপেক্স বাংলাদেশের জাতীয় সভাপতি ইলিয়াস জসিম, জাতীয় সহ-সভাপতি অধ্যাপক মাহমুদুল হক সাবু ও সদ্য সাবেক সভাপতি অধ্যাপক নিজাম উদ্দীন পিন্টু।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাবেক জাতীয় সভাপতি ও লাইফ গভর্নর অ্যাডভোকেট সৈয়দ নুরুর রহমান। অনুষ্ঠান পরিচালনা ও সমন্বয় করেন জাতীয় সেবা পরিচালক সুব্রত সাহা ও মনিরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সময়ের আলোর বিশেষ প্রতিনিধি মুনিফ আম্মার ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল হাই।
সূত্র : কালেরকন্ঠ