বাস ভাংচুর ও চালককে মারধরের অভিযোগ/ আসামিদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার
বাস ভাংচুর, চালককে অন্যায়ভাবে মারধরের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার আসামিদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন পরিবহন শ্রমিকেরা। রবিবার দুপুরে সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের আয়োজনে পৌর শহরের নতুন বাসস্টেশন এলাকায় এই মানবন্ধন হয়।
মানববন্ধনে সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক মো. নুরুল হক বলেন, শ্রমিকদের রাস্তাঘাটে কোন নিরাপত্তা নেই। আমাদের গাড়ি ভাংচুর হয়, শ্রমিকদের মারধর করা হয়, কিন্তু প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিতে পারে না। আমরা আমাদের নিরাপত্তা জন্য কর্মবিরতি পালন করবো। তিনি বলেন, আগামী মাসের ৩ তারিখের মধ্যে ছাতক থানায় আমাদের ওপর দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। তাছাড়া সুনামগঞ্জের দ্রুত বিচার আইনের মামলার আসামিদের গ্রেফতার করতে হবে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি সুজাউল কবির, সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি বুরহান উদ্দিন, সিলেট বিভাগের সভাপতি মইনুল ইসলাম প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তারা আরও বলেন, কয়েকদিন আগে তাহিরপুর থেকে পর্যটকদের নিয়ে আসার সময় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুবের আহমেদ অপুর নেতৃত্বে একটি বাসে হামলা মারধর ও ভাংচুর করা হয়। পরে সুনামগঞ্জ সদর থানায় ৭ জনকে আসামি করে দ্রুত বিচার আইনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা নিলেও আসামী গ্রেফতার করা হয়নি। এছাড়াও ছাতক থানার বড় কাপন এলাকায় দুটি বাস ভাংচুর ও চালকদের মারধর করা হয়েছিল, সেই বাসগুলো এখন পরিত্যক্ত অবস্থায় আছে। আসামি ধরলে পরের দিন বের হয়ে যায়। এরকম চলতে থাকলে আমাদের শ্রমিকদের কোন নিরাপত্তা থাকবে না। গাড়ি চালাতে হলে আমাদের শ্রমিকদের নিরাপত্তা দরকার, নইলে আমরা যাত্রীসেবা দিতে পারবো না।
এদিকে, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুবের আহমদ অপু রবিবার বিকালে এই প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, পরিবহন শ্রমিকদের মামলায় তাকে অন্যায়ভাবে যুক্ত করা হয়েছে। উচ্চ আদালত রবিবার তাকে জামিন প্রদান করেছেন।