বাহুবল’র ইউএনও’র শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার
হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী মহিউদ্দিনকে স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জসিম উদ্দিন কর্তৃক হাতকড়া পড়ানোর ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন সুনামগঞ্জ জেলা এলজিইডির কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ।
ঘটনার প্রতিবাদে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার জসিম উদ্দিনের শাস্তির দাবিতে ঘণ্টাব্যাপি মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন এলজিইডির কর্মকর্তা- কর্মচারীগণ।
গতকাল মঙ্গলবার জেলা এলজিইডি ভবনের সামনের সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে বেলা ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। প্রতিবাদী মানববন্ধনে জেলা ও বিভিন্ন উপজেলা এলজিইডির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা এলজিইডির সিনিয়র সহকারি প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন, সংহতি জানিয়ে মানববন্ধনে একাত্মতা পোষণ করে বক্তব্য রাখেন, জেলা গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবিল আয়াম, জেলা বিএডিসির সহকারি প্রকৌশলী খালিকুজ্জামান কল্লোল।
আরও বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা এলজিইডির সহকারি প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম, সদর উপজেলা প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী শামীম হাসান, দোয়ারাবাজার উপজেলা প্রকৌশলী হরিজিত সরকার, তাহিরপুর উপজেলা প্রকৌশলী মো. সাইদুল্লাহ, শাল্লা উপজেলা প্রকৌশলী মাহমুদুর রহমান, হিলিপ প্রকল্পের জেলা সমন্বয়কারী বুলবুল আহমেদ, জেলা এলজিইডির উচ্চমান সহকারি মো. সিদ্দিকুর প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,‘এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী প্রথম শ্রেণির একজন সরকারি কর্মকর্তা। আদালতে অভিযুক্ত হওয়ার আগে ও কর্তৃপক্ষের অনুমিত ছাড়া সরকারি কর্মকর্তাকে গ্রেফতারের বিধান না থাকলেও বাহুবল উপজেলা নির্বাহী অফিসার ক্ষমতার অপব্যবহার করে আইন অমান্য করে উপজেলা প্রকৌশলীকে হাতকড়া পড়িয়েছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ভুয়া রশিদে সরকারি টাকা আত্মসাৎ করছেন। গত ৬ মার্চ আরো কিছু ভুয়া বিল নিতে চাইলে উপজেলা প্রকৌশলী স্বাক্ষর করেননি। এতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলিশ ডেকে নিয়ে উপজেলা প্রকৌশলীকে হাতকড়া পড়ান।’
প্রসঙ্গত, গত ৬ মার্চ বেলা ১১ টায় বাহুবল স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জসিম উদ্দিন পুলিশ ডেকে নিয়ে উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী মহিউদ্দিনকে হাতকড়া পড়ান। এঘটনায় এলজিইডির কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।