বাড়ি ফিরলেন বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার করোনা জয়ী ৬ জন

স্বপন কুমার বর্মন, বিশ্বম্ভরপুর
বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন থেকে করোনা জয়ী ৬ জনকে ২০ দিন পর ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকেও লকড্উান তুলে নেওয়া হয়েছে।
রবিবার দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডা. চৌধুরী জালাল উদ্দিন মোর্শেদ আইসোলেশন থেকে ৬ জনকে ছাড়পত্র দেন।
আইসোলেশন ছাড়প্রাপ্তরা হচ্ছেন উপজেলা স্যানিটারী ইন্সপেক্টর তাপস চক্রবর্তী, যক্ষা ও কষ্ট নিয়ন্ত্রন সহকারি আশিকুর রহমান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের গাড়ি চালক ক্ষিরদ কুমার হাজং, বিশ্বম্ভরপুর স্বাস্থ্য বিভাগের ডা. সুমাইয়া আরফিন শান্তা, সুনামগঞ্জ সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা, উসমান হায়দার ও লালারগাঁও গ্রামের উত্তম দাশ।
এসময় করোনা বিজয়ীদের শুভেচ্ছা জানান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. সফর উদ্দিন ও ভাইস চেয়ারম্যান মো. তাজ্জদ খান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার রীনা, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা দীপক কুমার দাশ, উপজেলা পরিবার পরিকল্পা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুর রহমান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ছুরুয়ার আলম, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেন ভূঁইয়া, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. শফিকুল ইসলাম, বাদাঘাট (দঃ) ইউপি চেয়ারম্যান মো. এরশাদ মিয়া, প্রেসক্লাব সভাপতি স্বপন কুমার বর্মন সহ স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পা বিভাগের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীরা।
উল্লেখ্য, গত ২৭ এপ্রিল নমুনা সংগ্রহে পজেটিভ হওয়ায় এই ৬ জনকে হাসপাতালের আইসোলেসনে রাখা হয় এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে লকড্উানে রাখা হয়।