‘বিক্রি’ করে দেওয়া শিশু উদ্ধার, আটক ৩

স্টাফ রিপোর্টার
জামালগঞ্জ উপজেলায় একটি শিশুকে চুরি করে বিক্রি করে দেওয়ার তিনদিন পর ঐ শিশুটিকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত জোবেদা খাতুন ও মাবেল মিয়া ও কবির হোসেন নামে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।
শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্র মিডিয়ার সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে এক প্রেস ব্রিফিং করেন। তিনি বলেন, গত ১৩ আগস্ট সন্ধ্যায় জামালগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের অনুমিয়া ও ফাহমিদা দম্পতির সাড়ে তিন বছর বয়সের ছেলে সন্তান রাফসান মিয়াকে বাবা মায়ের অনুপস্থিতির সুযোগে ঘুমন্ত অবস্থায় চুরি করে নিয়ে যায় জোবেদা খাতুন ও মাবেল মিয়া । পরদিন চুরি যাওয়া শিশুটিকে সদর উপজেলার সর্দারপুর গ্রামের একটি বাড়িতে স্ট্যাম্পে লিখিত দিয়ে রামনগর গ্রামের কবির হোসেনের কাছে ১০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয়। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জামালগঞ্জ থানা পুলিশের সদস্যরা অভিযান চালিয়ে রামনগনর গ্রাম থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে। পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মাবেল মিয়া ও জোবেদা খাতুন শিশুটিকে চুরি করে বিক্রি করার অভিযোগ স্বীকার করেছে। চুরি যাওয়া শিশুটির বাবা মা জানান, বসত ঘরের বিছানা থেকে ঘুমন্ত অবস্থায় তাদের ছেলেকে চুরি করে নিয়ে যায় লক্ষ্মীপুর গ্রামের মাবেল মিয়া ও জোবেদা খাতুন।