বিদ্যুৎ সমস্যা নিয়ে সংসদে কথা বললেন মিসবাহ

স্টাফ রির্পোটার
সুনামগঞ্জ জেলার বিদ্যুৎ সমস্যা নিয়ে জাতীয় সংসদে কথা বললেন সুনামগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ।
তিনি বলেছেন, ‘সারাদেশে বিদ্যুৎ দেয়া হচ্ছে, গ্রামে গঞ্জে বিদ্যুৎ যাচ্ছে। কিন্তু গত কিছুদিন থেকে আমার নির্বাচনী এলাকা জেলা সদরের ভয়াবহ বিদ্যুতের সংকটে মানুষ। এই পবিত্র রমজান মাসে মানুষ বিদ্যুৎ পাচ্ছেন না। ইফতারের সময়, তারাবির সময়, সেহেরির সময়সহ প্রতিদিনই বিদ্যুতের ভোগান্তির স্বীকার হতে হচ্ছে। গতকাল সুনামগঞ্জের তাপমাত্র ছিল ৩৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস সকাল থেকে সন্ধা পর্যন্ত ঘোষণা দিয়ে বিদ্যুৎ বন্ধ করা হয়েছিল। তারপর মাঝে মাঝে বিদ্যুৎ আসে আবার চলে যায়। মানুষের জন্য যদি রমজান মাসে বিদ্যুৎ সরবরাহ না করা যায় তাহলে এই বিপুল বরাদ্দ দিয়ে কি হবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘এই মহান জাতীয় সংসদে সুনামগঞ্জের দুর্নীতির কথা বলি কিন্তু একটাও তদন্ত করাতে পারি নাই। এই সুনামগঞ্জের বিদ্যুতের সাব-স্টেশন নিয়ে, হাসপাতাল নিয়ে প্রতিবছর সংসদে দুর্নীতির বিষয়ে কথা বলেছিলাম। একটা দুর্নীতির তদন্ত আজ পর্যন্ত হয় নাই। এই জাতীয় সংসদে মানুষের কথা বলি, দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলি।’
পীর মিসবাহ এমপি ব্যাংকিং খাতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার আহবান জানিয়ে বলেন, ‘সরকারের উন্নয়ন ম্লান করে দিয়েছে এক ব্যাংকিং খাত। তিনি ব্যাংক লুটপাটকারীদের শাস্তির আওতায় এনে আর্থিক খাতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার দাবি জানান।
স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে রবিবার জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের সম্পূরক বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন।
ব্যাংক লুটপাটকারী ও অর্থ পাচারকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অর্থমন্ত্রীর তদন্ত কমিশন গঠন করার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসায় সমালোচনা করে তিনি বলেন,‘অর্থমন্ত্রী বলেছেন পরবর্তী সরকারের কাছে দিয়ে যাবেন। কেনো উনি দিতে পারলেন না? কারণ কমিশন দিলে কারা লুটপাটের সঙ্গে জড়িত সব বেরিয়ে আসবে।