বিশ্বকাপ ট্রফি একদিন বাংলাদেশে আসবেই, কিংবদন্তি সাংবাদিক গাফ্ফার চৌধুরী

লন্ডন প্রতিনিধি
বিশ্বকাপ ট্রফি একদিন বাংলাদেশে আসবেই, এ মন্তব্য অমর একুশে গানের রচয়িতা কিংবদন্তি সাংবাদিক আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরীর। লন্ডন ভিত্তিক অনলাইন সংবাদ মাধ্যম সত্যবাণী আয়োজিত এক ‘ক্রিকেট মিডিয়া গার্ডেন পার্টিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।
কালের সাক্ষী প্রবীণ সাংবাদিক ও কলামিষ্ট আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী বলেন, ‘এক সময়ের অভিজাত শ্রেণীর খেলা ক্রিকেটকে সাধারণ মানুষের খেলায় পরিণত করেছে আমাদের দামাল ছেলেরা। সুতরাং আজ না হোক কাল ক্রিকেট বিশ্বকাপ ট্রফি একদিন বাংলাদেশে আসবেই।’
গত ৬ জুলাই লন্ডনে ক্রিকেট বিশ্বকাপ সংবাদ সংগ্রহে বাংলাদেশ থেকে আসা সাংবাদিকদের নিয়ে লন্ডন ভিত্তিক অনলাইন সংবাদ মাধ্যম সত্যবাণী আয়োজিত এক ‘ক্রিকেট মিডিয়া গার্ডেন পার্টি’তে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।
শুরুতে অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ায় সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বলেন সত্যবাণীর প্রধান সম্পাদক সৈয়দ আনাস পাশা।
বাংলাদেশ থেকে আগত সাংবাদিকবৃন্দ ছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লন্ডন সফররত বিসিবি‘র পরিচালক ও দৈনিক উত্তরপূর্ব সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ, সাবেক সাংসদ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, বিসিবি’র সাবেক জাতীয় কোচ, ক্যাপিটাল কিডস ক্রিকেটের প্রধান নির্বাহী ও হেড অব ডেভোলাপমেন্ট শহিদুল আলম রতন, লন্ডনস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশনের মিনিস্টার (প্রেস) আশেকুন্নবী চৌধরিী, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক ও যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী ও চ্যানেল এস টিভির সিলেট ব্যুরো প্রধান মইন উদ্দিন মঞ্জু।
ঢাকার সাংবাদিকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এটিএন বাংলার তওসিয়া ইসলাম, চ্যানেল আই‘র সাঈদুর রহমান শামীম, বারতা ২৪ এর এম এম কায়সর, নিউ এজ এর আজাদ মজুমদার, মানব কন্ঠের মহিউদ্দিন পলাশ, বৈশাখী টিভি’র এস এম সুমন, বাসস এর আসিফ মাহমুদ ও আরটিভি’র রাজিব খান প্রমুখ।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ সাংবাদিক উদয় শংকর দাশ, ডা. জাকি রেজওয়ানা আনোয়ার, ব্রডকাষ্ট জার্নালিষ্ট ও গবেষক বুলবুল হাসান, টিভি উপস্থাপিকা উর্মী মাজহার, খ্যাতিমান সঙ্গীত শিল্পী গৌরি চৌধুরী, সত্যবাণীর কন্ট্রিবিউটিং এডিটর আনসার আহমেদ উল্লাহ, বার্তা সম্পাদক নিলুফা হাসান, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট মতিয়ার চৌধুরী, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ফেরদৌসি কলি, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব সভাপতি এমদাদুল হক চৌধুরী, সহসভাপতি তারেক চৌধুরী, বাংলা প্রেসক্লাব সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য আব্দুল কাইয়ুম, শাহনাজ সুলতানা, এস এ টিভি’র যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি হেফাজুল করিম রাকিব, সময় টিভি’র শুয়েব কবির, চ্যাণেল এস টিভির মোহাম্মদ জোবায়ের, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ আ. স. ম মাসুম, রাজনীতিক সৈয়দ এনামুল ইসলাম, যুক্তরাজ্য জাসদ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ লিলু ও যুবনেতা জামাল খান প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী বলেন, ‘সাধারণ মানুষ থেকে উঠে আসা বাংলাদেশের খেলোয়াররা আজ বিশ্ব ক্রিকেটের মাঠ কাঁপাচ্ছে। জীবনের শেষ প্রান্তে এসে আমার মত একজন মানুষের জন্য এটি এক বিরাট পাওয়া। টাইগাররা আজ দেশের দূত হয়ে আলোড়ন তুলেছে বিশ্বব্যাপী। তাদের উপর আস্থা রাখুন। এই সোনার ছেলেরা ক্রিকেট বিশ্বকাপ একদিন বাংলার ঘরে নিয়ে আসবেই।’
মুক্তিযুদ্ধের প্রবীণ সংগঠক সুলতান শরীফ জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, আমাদের ছেলেরা আজ বিশ্ব ক্রিকেটাঙ্গন কাঁপাচ্ছে বাংলাদেশের জন্মদাতা বঙ্গবন্ধু এটি দেখে যেতে পারেননি। তাঁর দেখানো পথে হাঠতে পারলে শুধু ক্রিকেট নয়, বাংলাদেশের প্রতিটি ক্ষেত্রেই সফলতা এসে ধরা দিতে বাধ্য, এটি আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি।
বিসিবি’র পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল ক্রিকেট গার্ডেন পার্টির আয়োজন করায় সত্যবাণী পরিবারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ ক্রিকেটের আজকের যা অর্জন তার ভাগিদার শুধু ক্রিকেট টিম বা বিসিবিই নয়, পুরো বাংলাদেশের মানুষ। বাংলাদেশ বুকে ধারণ করা এই মানুষগুলোর প্রতি বিসিবি’র পক্ষ থেকে আমার শ্রদ্ধা ও স্যালুট। এইসব মানুষের প্রেরণাই বাংলাদেশকে বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম মধ্যমনি হতে সহায়তা করেছে।
অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে ছিলো এক সংক্ষিপ্ত সঙ্গীতানুষ্ঠান। এতে সঙ্গীত পরিবেশন করেন ব্রিটেনের খ্যাতিমান সঙ্গীত শিল্পী গৌরি চৌধুরী ও শিশু শিল্পী রাফা হক।