বিশ্বকাপ নিয়ে পরিকল্পনা করবেন কারস্টেন

সু.খবর ডেস্ক
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড চেয়েছিল গ্যারি কারস্টেনকে পরামর্শক হিসেবে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ পর্যন্ত রাখতে। কিন্তু বাংলাদেশের পরামর্শক হিসেবে দীর্ঘমেয়াদি কাজ করতে আগ্রহী নন তিনি। কাজ করবেন স্বল্প মেয়াদে। এই সময়ের মধ্যে তিনি বাংলাদেশ দলের মধ্যে একটি পর্যাবেক্ষণ চালাবেন।
সাবেক প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান পর্যালোচনা অনুযায়ী, বিসিবিকে কোচ নিয়োগ দেওয়ার পরামর্শ দেবেন। এরপর আগামী বছর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে এবং টি-২০ বিশ্বকাপে টাইগাররা কিভাবে সাফল্য পেতে পারেন তার একটি পরিকল্পনা তৈরি করবেন তিনি। বিসিবির প্রধান নির্বাহি নিজামউদ্দীন চৌধুরী এমনটাই জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, ‘কারস্টেন আমাদের কোচ খুঁজে পেতে পরামর্শকের ভূমিকায় কাজ করবেন। সে জন্য দলের ভেতরে তিনি একটি পর্যালোচনা চালাচ্ছেন। প্রথমে আমরা তার সঙ্গে দলের দীর্ঘমেয়াদি কাজ করার জন্য কথা বলেছিলাম। তিনি রাজিও হয়েছিলেন। কিন্তু এখন তিনি স্বল্প মেয়াদে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন।’ কারস্টেন প্রথমে বাংলাদেশে তিন দিন সময় কাটাবেন। এর মধ্যে প্রথম দিন তার বেশ ব্যস্ত সময় কেটেছে। মাশরাফি-মুশফিক এবং তামিমদের সঙ্গে বসে আলাপ করেছেন তিনি। নিজামউদ্দীন চৌধুরির মতে, কারস্টেন এরপর বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ এবং টি২০ বিশ্বকাপে সাফল্যের কথা মাথায় রেখে একটি পরিকল্পনা তৈরি করবেন। সে অনুযায়ী তিনি দলকে নির্দেশনা দেবেন। এতে দলের সাফল্য আসবে বলেও বিশ্বাস কারস্টেনের।
সাবেক ভারতীয় কোচ স্বাধীনভাবে কাজ করতে চান বলে জানান বিসিবির প্রধান নির্বাহী। তিনি বলেন, ‘কারস্টেন কাজ শুরু করার আগে পরিকল্পনা তৈরির দিকে জোর দিচ্ছেন। আমরা তার পর্যাবেক্ষণ শেষে তৈরি করা পরিকল্পনা দেখতে মুখিয়ে আছি। সবচেয় গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো তিনি স্বাধীনভাবে কাজ করতে চান। আমরা তাকে এজন্য প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিতে চাই।’
কারস্টেন যাতে কোচ নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে ভালো নাম সুপারিশ করতে পারে সেজন্য বিসিবির পক্ষ থেকে একটি নামের তালিকায় দেওয়া হয়েছে বলেও জানান নিজামউদ্দীন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘আমরা তাকে কিছু নাম পাঠিয়েছে। তিনি সেই তালিকা থেকে কোচদের সঙ্গে কথা বলবেন। তিনি কোচদের তার পছন্দ-অপছন্দের ব্যাপারেও কথা বলবেন। আমরা আশা করছি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের আগেই প্রধান কোচ পেয়ে যাবো।’