বিশ্বম্ভরপুরে অতিবৃষ্টিতে জনদুর্ভোগ

সালেহ আহমদ, বিশ্বম্ভরপুর
বিশ্বম্ভরপুরে অতিবৃষ্টি, ঝড়ো হাওয়া, পাহাড়ী ঢলে বিভিন্ন এলাকার আমন ধানের বীজতলা, শাকসবজি ও রাস্তা ঘাটের ক্ষয়ক্ষতিসহ জন জীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।
উপজেলার পলাশ, সলুকাবাদ, ধনপুর, বাদাঘাট (দঃ) ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার আমন ধানের বীজতলা ও শাক সবজির মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে। ফতেপুর ইউনিয়নের নি¤œাঞ্চলে বিভিন্ন গ্রামের বাড়ী ঘর, রাস্তা ঘাট তলিয়ে গেছে। হাওরের ঢেউয়ে বাড়ী ঘর ও রাস্তা ঘাটের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। অনেক পাকা-কাঁচা রাস্তা পাহাড়ী ঢলের তোড়ে ভেঙ্গে জনদুর্ভোগ দেখা দিয়েছে।
বাদাঘাট (দঃ) ইউনিয়নের শক্তিয়ারখলা দুর্গাপুরে এলজিইডির ডোবা রাস্তাটি সপ্তাহব্যাপী পানির নিচে থাকায় তাহিরপুর উপজেলাবাসী সহ বাদাঘাট দক্ষিণ ইউনিয়ন বাসীর সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। ভাটিপাড়া হতে শক্তিয়ারখলার ১০০শত মিটার ব্রীজ পর্যন্ত ইঞ্জিন চালিত ছোট নৌকা যোগে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে লোকজন প্রতিদিন যাতায়াত করছেন।
ওমরপুর গ্রামের হাবিবুর রহমান বলেন, ‘মিছা খালী রাবারড্যাম নির্মাণের পূর্বে জামের তলা বিল দিয়ে পাহাড়ী ঢলের পানি প্রবাহের তীব্রতা বেশী ছিল। রাবারড্যাম নির্মাণের ফলে এই পানি প্রবাহের তীব্রতা অর্ধেক কমে গেছে। তাই ডোবা রাস্তার কোন প্রয়োজন হবে না। আমরা ১০০শত মিটার ডোবা রাস্তার ও দুর্গাপুরের ডোবা রাস্তাটি উঁচু করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানাই।