বিয়াম ফাউন্ডেশনের স্কুলগুলোকে সর্বোচ্চ মানে উন্নীত করতে চাই- ড. এম মিজানুর রহমান

স্টাফ রিপোর্টার
বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এ- ম্যানেজমেন্ট (বিয়াম) ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক ড. এম মিজানুর রহমান বলেছেন, বিয়াম ফাউন্ডেশনের পরিচালিত স্কুলগুলোকে দেশের সর্বোচ্চ মানের স্কুলগুলোর কাতারে নিয়ে যেতে চাই। সুনামগঞ্জের বিয়াম ল্যাবরেটরী স্কুলকে শীঘ্রই নবম-দশম শ্রেণি পর্যন্ত উন্নীত করা হবে। সরকারের সকল সুযোগ সুবিধা ভোগ করবে এই স্কুল। স্কুলের শিক্ষকদের আপডেট করার জন্যও উদ্যোগ নেওয়া হবে। সুনামগঞ্জের বিয়াম ল্যাবরেটরী স্কুল যে স্থানে আছে, সেখানেই থাকবে।’
শনিবার সকালে বিয়াম ল্যাবরেটরী স্কুলের শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখার সময় তিনি এসব কথা বলছিলেন। তিনি বলেন, বিত্তবানদেরও স্কুলের উন্নয়নে এগিয়ে আসতে হবে। একটি ভালো বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় শিক্ষক, অভিভাবক, শিক্ষার্থী এবং স্কুল পরিচালনা কর্তৃপক্ষ সকলকেই সমানভাবে দায়িত্বশীল হতে হবে। সুনামগঞ্জ বিয়াম ল্যাবরেটরী’র ক্যাম্পাস দেখে তিনি এই প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষাবান্ধব পরিবেশে গড়ে ওঠেছে মন্তব্য করে বলেন, স্কুলের জমি জেলা প্রশাসনের, স্কুলটিও জেলা প্রশাসন কর্তৃক পরিচালিত, সুতরাং এই মনোরম পরিবেশেই স্কুলটি পরিচালিত হবে। কোমলমতি শিশুদের এখান থেকে কেউ বের করে দেবে না।
তিনি বলেন, বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকালীন অন্যতম উদ্যোক্তা সুনামগঞ্জের কৃতী সন্তান ড. মোহাম্মদ সাদিক বার বার এই বিদ্যালয়টি’র প্রতি নজর দেবার কথা বলে আসছেন। তাঁরাও এই প্রতিষ্ঠানটির প্রতি বিশেষ নজর দেবেন। তিনি ঢাকায় গিয়েই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য খেলনা সামগ্রী পাঠিয়ে দেবেন বলে শিক্ষার্থী-অভিভাবকদের জানান।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও উন্নয়ন) হারুন অর রশিদ। বক্তব্য রাখেন- অধ্যক্ষ জান্নাতুল ফেরদৌস, শিক্ষার্থী অভিভাবক পঙ্কজ কান্তি দে, সীমা রানী বিশ্বাস, নুরুল আলম প্রমুখ।