বৃষ্টিতে ৩০ টি বাঁধের মাটি দেবেছে

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জের কোন কোন এলাকার হাওর রক্ষা বাঁধ দেবে গেছে, কোথাও কোথাও বাঁধে ফাটলও দেখা দিয়েছে। রোববার ভোর রাত থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কয়েক দফা বৃষ্টির কারণে এমন অবস্থা হয়েছে। হাওরপাড়ের কৃষকরা বলেন,‘প্রকৃতি কাউকে ছাড় দেয় না, যারা বাঁধের কাজে ফাঁকিবাজি করতে চেয়েছিল, তারা এবার আটকা পড়েছে। বাঁধের মাটি যারা ভাল করে কমপেকশন করেনি, সেই সব প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির (পিআইসি’র) বাঁধেই ফাটল দেখা দিয়েছে।’
শাল্লা উপজেলার দাঁড়াইন নদীর পাড়ের ছায়ার হাওর রক্ষার জন্য দেওয়া মাদারিয়া বাঁধের একটি অংশ দেবে গেছে। এই হাওরের মুক্তারপুরের পাশের বাঁধের একটি অংশেও ফাটল দেখা দিয়েছে। এই উপজেলার দাঁড়াইন নদীর পাড়ের ভা-াবিল রক্ষার জন্য নির্মিত হরিনগরের বাঁধের একটি অংশ দেবে গেছে। বরাম হাওরের ব্রাহ্মণগাঁওয়ের পাশের বাঁধের একটি অংশ ধসে গেছে।
মুক্তারপুরের কৃষক রবীন্দ্র দাস বলেন,‘বৃষ্টি হওয়ায় ফাঁকিবাজি ধরা পড়েছে। অনেক
বাঁধের মাটি দেবেছে, কোথাও কোথাও ফাটল দেখা দিয়েছে। এখন বৃষ্টি হওয়ায় এগুলো মেরামত করা যাবে। লাগাতার বৃষ্টি হলে এসব বাঁধ ভেঙে-ই হাওরের ফসল তলিয়ে যেত।’
সুনামগঞ্জ পাউবো’র নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক বলেন,‘বাঁধে কারা ফাঁকিবাজি করেছেন রোববারের বৃষ্টি সেটি জানিয়ে গেছে। যেসব বাঁধের মাটি কমপেকশন ঠিকভাবে করা হয়নি সেগুলোই দেবেছে, গর্ত হয়েছে বা ধসে গেছে। এগুলো দ্রুতই ঠিক করে দিতে হবে।’
তিনি জানান, জেলার ৫৭২ টি বাঁধের মধ্যে ২৫-৩০ টি বাঁধে এমন অবস্থার খবর রোববার সন্ধ্যা পর্যন্ত পেয়েছেন তারা। সোমবার হয়তো আরও খবর পাওয়া যেতে পারে।