ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ছাত্রীকে গণধর্ষণ

ধর্মপাশা প্রতিনিধি
ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ধর্মপাশায় ৮ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। ওই ছাত্রীর বাড়ি পাইকুরাটি ইউনিয়নের একটি গ্রামে। এ ঘটনায় পুলিশ সৈকত নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে। আর ছাত্রীর মা বাদী হয়ে সোমবার বিকেলে একই ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের মৃত রজমান আলীর ছেলে সৈকত সবিকুলের ছেলে এনামুল ও মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে উদয়কে আসামী করে ধর্মপাশা থানায় মামলা করেছেন।
গত ১০/১২ দিন আগে আগে ছাত্রীর মা চিকিৎসাজনিত কাজে ছাত্রীকে বাড়িতে একা রেখে ময়মনসিংহ গিয়েছিলেন। সেই সুযোগে একদিন সন্ধ্যায় এই ঘটনা ঘটে। কিন্তু ছাত্রী তার পরিবারকে কিছু জানায়নি। কিন্তু ধর্ষণের ভিডিও কয়েকদিন আগে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি ছাত্রীর পরিবারসহ এলাকায় জানাজানি হয়। এদিকে গত রোববার রাতে এ ঘটনায় সৈকতকে আটক করে পুলিশ। পরে তাকে এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়।
ধর্মপাশা থানার ওসি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, ‘ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। সৈকতকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।’