ভুয়া ছবি দিয়ে নিউজ প্রকাশ নিন্দা ও প্রতিবাদ

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ অফিস
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার উপ্তিরপাড় গ্রামে কচুরিপনা নিয়ে সংঘর্ষ, ভুয়া ছবি দিয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন একটি সংবাদ বিভিন্ন অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশ হওয়ায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন উপজেলার সর্বস্তরের জনসাধরণ। ভিত্তিহীন নিউজ করে বিভ্রান্তি ছড়ানোয় সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে চলছে সমালোচনার ঝড়। বাস্তবে এরকম কোন ঘটনা ঘটেনি দক্ষিণ সুনামগঞ্জে। এরকম ভিত্তিহীন নিউজ প্রচার করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন অনেকেই। ফলে চারিদিকেই এখন এই ভুয়া নিউজের সমালোচনা আর নিন্দা ও প্রতিবাদ।
জানা যায়, গত ২০ ফেব্রুয়ারি ও আজ ২১ ফেব্রুয়ারি তারিখে দক্ষিণ সুনামগঞ্জের উপ্তিরপাড় গ্রামে “কচুরিপানা নিয়ে দুইপক্ষের সংঘর্ষে আহত ২০ ও গ্রেফতার ১০” শিরোনামে দেশের কিছু নামী দামী প্রিন্ট মিডিয়া ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল সংবাদ প্রকাশ করে যা স¤পূর্ণ ভুয়া। এ ব্যাপারে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক স¤পাদক হোসাইন আহমদ বলেন, অনেক অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়ায় নিউজটি আমি পড়েছি। আমি এ উপজেলার বাসিন্দা। এধরনের মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করার আগে উপজেলায় কর্মরত গনমাধ্যমকর্মীদের নিকট থেকে তথ্য নেওয়া প্রয়োজন ছিল। পুলিশ প্রশাসনের সাথে যোগযোগ করাও প্রয়োজন ছিল। অধিকাংশ নিউজ পোর্টাল নিজেদের ইচ্ছামতো কপি কাট পেস্ট করেছে। সংবাদ যাচাই না করে প্রকাশ করা অতি নিন্দনীয় কাজ।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী এম জমিরুল ইসলাম মমতাজ বলেন, ভিত্তিহীন নিউজ প্রচার করা একধরনের অপরাধ। কচুরিপানা নিয়ে যে নিউজটি প্রকাশ হয়েছে এধরনের ঘটনা আদৌ আমাদের উপজেলায় ঘটেনি।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী জানান, গত মঙ্গলবার উপ্তিরপাড় তথা আমার থানা এলাকায় কোন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে নাই। কাউকে ধরে চালানও দেই নাই। গত মাসের ২৩ তারিখে উপ্তিরপাড়ে জলমহাল নিয়ে মারামারি হয়েছিল। তখন ১০ জনকে ধরে চালান দিয়েছি। মামলাও দায়ের হয়েছে।