মথুরকান্দি-বাঘবেড় সড়কের বেহাল অবস্থা

আকরাম উদ্দিন
বিশ^ম্ভরপুর উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের মথুরকান্দি ও বাঘবেড় বাজার সড়কের বেহাল অবস্থা। প্রায় ১৫ বছর আগে এই সড়কে একবার সংস্কার কাজ হয়েছিল। দীর্ঘদিন যাবত সংস্কার কাজ না হওয়ায় সড়কের বিভিন্ন স্থানে ছোট ও বড় আকারের অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে মানুষের ভোগান্তি দিনে দিনে বেড়েই চলেছে। এই সড়ক সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।
সরেজমিনে গেলে আরজু মিয়া, স্বপন মিয়া, আব্দুল হেকিম, কাজল মিয়া, আঞ্জু মিয়া, ইমাম উদ্দিন, জাকির হোসেন, শাহাব উদ্দিন, আব্দুর রজ্জাক, মথুরকান্দি গ্রামের আবু মোহাম্মদ মোছা, ইমান আলী, লতিফ মিয়া, মন্নাছ মিয়া, আব্বাছ আলী, উছমান গণিসহ অনেকে জানান, প্রায় ১৫ বছর আগে একবার সড়কের সংস্কার কাজ হয়েছিল। এরপর আর কোনো সংস্কার কাজ হয়নি। কাজ না হওয়ায় সড়কের বিভিন্ন স্থানে ছোট-বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। শুকনায় ধুলোবালি জমে তা বাতাসে উড়ে এলাকার পরিবেশ নষ্ট করে। বর্ষায় বৃষ্টির পানি জমে কাদার সৃষ্টি হয়। প্রতিদিন স্থানীয় বাঘবেড় বাজার ও মথুরকান্দি বাজারে বাইরে থেকে আসা-যাওয়া করেন কয়েক হাজার মানুষ। এই সড়ক দিয়ে হাজার হাজার মানুষ, শত শত যানবাহন, একাধিক প্রাইমারী স্কুল ও হাইস্কুলের শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী, চাকুরিজীবী এবং বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ চলাচল করে থাকেন।
আদাং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সোহেল রানা, নবী হোসেন ও শাহ আলম বলেন,‘শুকনার দিনে যেমন জামা-কাপড় নষ্ট হয় ধূলায়, তেমনি বৃষ্টির দিনে নষ্ট হয় কাদায়। এই সড়কের কোনো উন্নয়ন নেই। জরুরি উদ্যোগে সড়ক সংস্কারের দাবি আমাদের।’
রতারগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রহিম উদ্দিন ও দিলফেরা খাতুন বলেন,‘আমাদের এলাকার রাস্তা-ঘাটের কোনো উন্নয়ন নেই। রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন না হওয়ায় চলাচলে আমাদের ভোগান্তি বেড়েছে।’
আদাং গ্রামের বাসিন্দা আবু হানিফা বলেন,‘সড়কের উপর এতো বড় বড় গর্ত কেউ দেখলে মনে করবে এই সড়কে যানবাহন বা মানুষ চলাচল করে না। এই সড়কে ঘণ্টায় প্রায় দেড়শত যানবাহন চলাচল করে। এই বর্ষায় সড়কে চলাচলকারী যানবাহনের ছিটকে পড়া কাদায় জামা-কাপড় নষ্ট করে। সড়কের উন্নয়ন জরুরি প্রয়োজন।’