মনিপুরী নৃত্য সিলেট অঞ্চলের ঐতিহ্যের অবিচ্ছেদ্য অংশ-আরিফ

সু.খবর ডেস্ক
সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, মনিপুরী নৃত্য আমাদের সিলেট অঞ্চলের ঐতিহ্যের অবিচ্ছেদ্য অংশ। রবীন্দ্রনাথ সিলেট সফরকালে মনিপুরী নৃত্য দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন এবং শান্তি নিকেতনে মনিপুরী নৃত্য চর্চার ব্যবস্থা করেছিলেন। নতুন প্রজন্মকে এ নৃত্য সম্পর্কে জানাতে হবে। তাদেরকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে এ বিষয়ে দক্ষ করে তুলতে হবে।
সোমবার নগরীর মনিপুরী রাজবাড়ী মহাপ্রভু জিও মন্দিরে একাডেমি ফর মনিপুরী কালচার এন্ড আর্টসের আয়োজনে এবং সিলেটস্থ ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনের সহযোগিতায় আয়োজিত মনিপুরী নৃত্য কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
১০ দিনব্যাপী মনিপুরী নৃত্য কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন একাডেমি ফর মনিপুরী কালচার এন্ড আর্টসের সাধারণ সম্পাদক শান্তনা দেবী।
একাডেমি ফর মনিপুরী কালচার এন্ড আর্টসের সভাপতি দীগেন সিংহের সভাপতিত্বে ও সংস্কৃতিকর্মী রবিকিরণ সিংহ রাজেশের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার সিলেট এল. কৃষ্ণমূর্তি, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরামুল কবির, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অনিল কিষন সিংহ, বাংলাদেশ মনিপুরী সাহিত্য সংসদের সভাপতি এ কে শেরাম, ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনের সেকেন্ড সেক্রেটারি গিরিশ পূজারী, ভারতের মনিপুর জওহরলাল নেহারু ডান্স একাডেমির নৃত্য প্রশিক্ষক থোকচম ইবেমমুবি ও কে. যাদু সিংহ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে আরিফুল হক চৌধুরী আরও বলেন, মনিপুরী নৃত্যকে আরো উন্নত পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সব ধরনের নৃত্য প্রশিক্ষণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। সিলেট নগরীকে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে উঠবে। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে সিলেট বাংলাদেশের রোড মডেল নগরী হিসেবে গড়ে উঠবে।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার এল. কৃষ্ণমূর্তি বাংলাদেশ ও ভারতের সম্পর্ক অত্যন্ত সৌহার্দ্যপূর্ণ। সাংস্কৃতিক সহযোগিতার মাধ্যমে তা আরো দৃঢ় হবে।
১০ দিনব্যাপী এ মনিপুরী নৃত্য কর্মশালার প্রশিক্ষণ ১৯ জুন পর্যন্ত চলবে। মনিপুরী এ নৃত্য কর্মশালায় সারা বাংলাদেশ থেকে শতাধিক প্রশিক্ষণার্থী অংশ নেন।
২০ জুন কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠান নগরীর রিকাবীবাজারস্থ কবি কাজী নজরুল ইসলাম অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে।
সূত্র : সিলেটটুডে২৪.কম