মান্নান-ডন হঠাৎ সাক্ষাৎ- সমর্থকরা উল্লসিত

আলী আহমদ, জগন্নাথপুর
সুনামগঞ্জ -৩ আসনে আওয়ামীলীগের বর্তমান সংসদ সদস্য অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান ও স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত জাতীয় নেতা আব্দুস সামাদ আজাদ তনয় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সাবেক সহ সম্পাদক দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত আজিজুস সামাদ ডনের মধ্যে গতকাল সোমবার রাতে সিলেটের ওসমানি বিমানবন্দর এলাকায় হঠাৎ দেখা হয়। তাঁরা পাশাপাশি বসেছেন, কথাও হয়েছে দুইজনের মধ্যে। মান্নান ও ডনের এই সাক্ষাৎ ও আলোচনা জগন্নাথপুর-দক্ষিণ সুনামগঞ্জসহ সিলেট বিভাগে এখন ‘টক অব দ্য টাউন’। এই সাক্ষাতের মধ্য দিয়ে মান্নান ও ডনের বিরোধ মিটে কিনা সে নিয়ে পুরো অঞ্চল এখন আলোচনামুখর। এ দুই নেতার মধ্যে ঐক্য হলে নৌকার জয় প্রায় নিশ্চিত হয়ে যাবে বলে মনে করছেন নেতাকর্মী ও ভোটাররা। কারণ দু’জনেই বিশাল সমর্থক রয়েছে নির্বাচনী মাঠে।
সোমবার রাত থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এমএ মান্নান ও আজিজুস সামাদ ডনের আকস্মিক বৈঠকের ছবি ভাইরাল হয়। এতে করে নেতাকর্মীরা উল্লসিত হয়ে পড়েছেন।
২০০৫ সালের ২৭এপ্রিল প্রয়াত জাতীয় নেতা আব্দুস সামাদ আজাদ মৃত্যুবরণ করলে তাঁর শূন্য আসনে ওই বছরের ২০ জুলাই অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচনে সামাদপুত্র আজিজুস সামাদ ডনের প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছা থাকলেও আওয়ামী লীগ দলীয়ভাবে অংশগ্রহণ না করায় তিনি প্রার্থী হননি। পিতার মৃত্যুর পর থেকেই নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়ানো শুরু করেন ডন। ২০০৮, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বঞ্চিত হন তিনি। ২০১৪ সালে তিনি মনোনয়ন বঞ্চিত হলে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়ে আওয়ামীলীগের এমএ মান্নানের নিকট সামান্য ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন। এবারের একাদশ সংসদ নির্বাচনেও এমএ মান্নানের সঙ্গে মনোনয়ন যুদ্ধে মূল লড়াইয়ে ছিলেন আজিজুস সামাদ ডন। এমএ মান্নান ও আজিজুস সামাদ ডনকে ২০১০ সালে জগন্নাথপুর পৌরসভায় কৃষক সমাবেশে একই মঞ্চে দেখা গিয়েছিল। এরপর প্রায় ৩ বছর পর ২০১৩ সালের দিকে জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আকমল হোসেনের সংবর্ধনা অন্ষ্ঠুানে উপজেলা সদরের আব্দুস সামাদ আজাদ অডিটরিয়ামে এই দুই নেতাকে এক মঞ্চ দেখা গেলেও তখন তাঁদের মধ্যে কোনো কথা হয়নি। এরপর থেকেই এ দুই নেতাকে কখনও এক সঙ্গে দেখা যায়নি।
সিলেট ওসমানি বিমানবন্দর এলাকায় রাত ৯টার দিকে হঠাৎ করে প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান ও আজিজুস সামাদ ডন পাশাপাশি বসে কথা বলেছেন।
ওই সময় উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র উপজেলা আওয়ামীলীগ সহসভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল মনাফ।
তিনি জানান, এমএ মান্নান ও আজিজুস সামাদ ডনের মধ্যে আন্তরিক পরিবেশে সৌজন্য বৈঠক হয়েছে। এতে করে নেতাকর্মীরা নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে শতভাগ আশাবাদী হয়ে উঠেছেন। আগামীতে দুজন একসাথে নৌকার বিজয় নিশ্চিতে কাজ করবেন বলে আমাদের প্রত্যাশা রয়েছে।
এবিষয়ে জানতে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের উপ-কমিটির সাবেক সহ সম্পাদক আজিজুস সামাদ ডনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করেও তাঁকে পাওয়া যায়নি। অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, আজিজুস সামাদ আজাদ ডনের সঙ্গে সালাম বিনিময় হয়েছে। আরও আলোচনা হবে। আমি বিশ্বাস করি, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রতি আস্থাশীল হয়ে সকল ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার বিজয়ে সবাই এক পতাকাতলে সমেবেত হবেন।