আহত সেই বাবা-মা’কে চিকিৎসা শেষে টাকা ও ত্রাণ দিয়ে বাড়িতে পাঠালেন ইউএনও

স্টাফ রিপোর্টার, তাহিরপুর
তাহিরপুরে মেয়ের মারধরে গুরুতর আহত বৃদ্ধ মা ও বাবাকে চিকিৎসা শেষে নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দিয়েছেন তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার।
উপজেলার বালিজুড়ি ইউনিয়নের লোহাচুড়া শান্তিপুর গ্রামে গত ১০ মে রবিবার রাত ৮টায় মেয়ে শফিকুন নাহার বেগম ও তার মেয়ে ছেলে মাকছুরা, মুছাব্বির মিলে অমানবিক ভাবে তার পিতামাতাকে মারধর করে বসত ঘর থেকে বের করে দেয়। এমতাবস্থায় রবিবার রাতেই গ্রামের ইউপি সদস্য একরামুল হকের সহযোগীতায় তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বৃদ্ধ আব্দুল আহাদ (৮৫) ও তার স্ত্রী দিলবাহার (৭৫) কে চিকিৎসার তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
১৪ মে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাহাদের চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র নিয়ে ইউপি সদস্য মো. একরামুল হুদা তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারর নিকট সাক্ষাৎ করলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাদের ৪ হাজার টাকা ও দুই প্যাকেট ত্রাণ সামগ্রী দেন। টাকা, ত্রাণ সামগ্রী ও বৃদ্ধ আব্দুল আহাদ ও তার স্ত্রী দিলবাহার কে লোহাচুরা শান্তিপুর গ্রামে তাদের বসত বাড়িতে নিয়ে পৌঁছে দেন ইউপি সদস্য ফারুক মিয়া।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিজেন ব্যানার্জী বলেন, লোহাচুরা গ্রামের বৃদ্ধ আব্দুল আহাদ ও তার স্ত্রী দিলবাহারকে চিকিৎসা শেষে নগদ ৪ হাজার টাকা, ত্রাণসামগ্রীসহ ইউপি সদস্যকে দিয়ে তাদের বাড়িতে পাঠানো হয়েছে।