যুথিকা গোস্বামী

ছাতক প্রতিনিধি
ছাতক শহরের শ্রী শ্রী গৌরাঙ্গ মহাপ্রভুর আখড়া ও গোপাল জিউর আখড়ার প্রধান সেবায়িত হিমাদ্রী গোস্বামী মহর, উপমহাদেশের প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী হিমাংশু গোস্বামী ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী মিন্টু গোস্বামীর মাতা শ্রীযুক্তা যুথিকা গোস্বামী (৯৬) পরলোকগমন করেছেন (দিব্যাম লোকান স্ব-গচ্ছতু)। গত বুধবার সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে ঢাকার বিআরবি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি ৩ পুত্র, ১ কন্যা, নাতী-নাতনীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী ও শিষ্য রেখে গেছেন। বিকেল ৪টায় তিনির মরদেহ গৌরাঙ্গ মহাপ্রভুর আখড়া প্রাঙ্গণে রাখা হলে সনাতন ধর্মের লোকজন তাকে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান। এদিকে ছাতক পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী মরদেহে পুস্পস্তবক অপর্ন করে তাকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। এছাড়া আখড়া পরিচালনা কমিটি, বাগবাড়ি কালী মন্দির পরিচালনা কমিটিসহ সনাতন ধর্মীয় বিভিন সংগঠনের পক্ষ থেকে পুস্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে ৬টায় শহরের কেন্দ্রিয় শশ্মান ঘাটে তিনির শেষ অন্তেষ্ঠিক্রিয়া সম্পন্ন হয়। এসময় শশ্মান ঘাটে শবযাত্রী হিসেবে প্যানেল মেয়র তাপস চৌধুরী, সনাতন ধর্মিয় নেতা এড. পীযুষ ভট্টাচার্য্য, প্রাক্তন অধ্যাপক হরিদাস রায়, রবীন্দ্র কুমার দাস, মহন্ত কুমার রায়, বাবুল পাল, মৃদুল কান্তি দাস মিন্টু, স্বপন তরফদার, শিখা রানী দে, বিজয় রায়, বাবুল রায়, চম্পু দত্ত, রানা কর, নারায়ন রায়, তনু রায়, ভাস্কর নাগ, অমর দেবনাথ, গোবিন্দ ঘোষ, শৈলেন দে, কালীদাস পোদ্দার, মিটন লাল রায়, সৌরভ দাস, সুজিত পালসহ সনাতন ধর্মের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।