যৌতুক মামলা : সাময়িক বরখাস্ত শিক্ষক

স্টাফ রিপোর্টার, তাহিরপুর
তাহিরপুরে যৌতুক মামলায় জাকির হোসেন চৌধুরী নামে এক শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি।
তাহিরপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া তালুকদার জানান, বুধবার বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভায় সর্Ÿসম্মতিক্রমে এ সিদ্ধান্ত হয়।
তিনি আরও জানান, যৌতুক মামলা নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তিনি খোরপোষ ভাতা পাবেন এবং তাকে বিদ্যালয়ে নিয়মিত পাঠদান করতে হবে। সাময়িক বরখাস্ত হওয়া শিক্ষক জাকির হোসেন চৌধুরী তাহিরপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সহকারী শিক্ষক (কম্পিউটার)। গত ১১ অক্টোবর মঙ্গলবার রাত ৯টায় তার স্ত্রী সৈয়দা সুমনা বেগম কর্তৃক তাহিরপুর থানায় লিখিতভাবে দায়ের করা যৌতুক মামলায় গ্রেফতার হন জাকির হোসেন। বর্তমানে তিনি সুনামগঞ্জ জেলা কারাগারে রয়েছেন।
তাহিরপুর থানায় স্ত্রী সৈয়দা সুমনা বেগম কর্তৃক দায়ের করা লিখিত অভিযোগে জানা যায়, জাকির হোসেন চৌধুরী তাকে পূর্বের দাবিকৃত ৩লক্ষ টাকা ও একটি মোটর সাইকেল দেওয়ার জন্য প্রায়ই চাপ প্রয়োগ করে এবং বিভিন্ন সময় তাকে মারধর করে। মারধরের বিষয়ে পরিবারের লোকজন জানতে চাইলে তাদেরকেও জাকির হোসেন চৌধুরী অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।
তাহিরপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান বলেন, বলেন,পারিবারিক কলহের কারণে তাদের একাধিক বার বিচার শালিসি হলেও কোন সমাধান হয়নি। গত জুন মাসে তিনিসহ তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও তাহিরপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ ইয়াহিয়া তালুকদারকে নিয়েও সমঝোতার চেষ্টা করেছেন তাতেও কোন ফলাফল আসেনি। তিনি আরো জানান, পরে একদিন শিক্ষক জাকির হোসেন চৌধুরী তাদের জানান, তার স্ত্রীকে মোবাইলে তালাক দিয়েছেন। বর্তমানে তাদের দুটি সন্তান রয়েছে।