রানীগঞ্জ ইউনিয়ন থেকে বিভক্ত হতে চান না তিনগ্রামের লোক

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়ন থেকে বিভক্ত হতে চান না ইউনিয়নের তিন গ্রামের মানুষ।
গত সোমবার এবিষয়ে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহফুজুল আলম মাসুমের নিকট লিখিকতভাবে একটি আবেদনপত্র দাখিল করা হয়েছে।
জানা যায়, জগন্নাথপুরের রানীগঞ্জ ইউনিয়ন থেকে কয়েকটি ওয়ার্ড বিভক্ত হয়ে নতুন ইউনিয়ন পরিষদ গঠনের লক্ষ্যে এলাকায় প্রচারণা চলছে। এরমধ্যে ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডও বিভক্তে হচ্ছে বলে এমন খবর এলাকায় শুনা যাচ্ছে। কিন্তুই ৩ নং ওয়ার্ডের আলমপুর, নোয়াগাঁও ও বালিশ্রীগ্রামী ভৌগলিক অবস্থান থেকে সুযোগ সুবিদা রানীগঞ্জের সঙ্গে। এজন্যে নতুন ইউনিয়ন পরিষদের অর্ন্তভুক্ত হতে রাজি নয় গ্রামের লোকজন। এবিষয়ে তিন গ্রামের লোকজনের পক্ষে জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট লিখিতভাবে আবেদন করা হয়।
রানীগঞ্জ ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা গুলজার মিয়া জানান, ইউনিয়নের ভৌগলিক বিবেচনায় রানীগঞ্জে সঙ্গে আমাদের ৩ নং ওয়ার্ডের তিন গ্রামের জনসাধারণের যাতায়াতসহ সকল ধরণের সুযোগ সুবিদা ভালো। এজন্য ইউনিয়ন থেকে বিভক্ত হতে এলাকার লোকজন চাইছেন না। তাই বিষয়টি আমরা লিখিতভাবে প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে।
রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম রানা বলেন, ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ গঠিত হয়েছে। ইউনিয়ন জনসংখ্যা ৩৬ হাজার। ইউনিয়ন বিভক্তের বিষয়ে আমরা কোন কিছু জানা নেই।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহফুজুল আলম মাসুম বলেন, এলাকাবাসির লিখিত একটি আবেদনপত্র পেয়েছি।