রায়কে স্বাগত জানিয়ে বিভিন্ন সংগঠনের মিছিল সমাবেশ

স্টাফ রিপোর্টার
২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে স্বাগত জানিয়ে সুনামগঞ্জ আদালত প্রাঙ্গণে মিছিল ও সমাবেশ করেছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবীগণ। দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালত প্রাঙ্গণে মিছিল বের হয়, মিছিল শেষে সমাবেশ করেন তাঁরা।
জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও জেলা আইনজীবী সমিতির প্রাক্তন সভাপতি অ্যাড. আপ্তাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও অ্যাড. শুকুর আলীর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. রইছ উদ্দিন, অ্যাড. আলী আমজাদ, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি পিপি অ্যাড. ড খায়রুল কবির রুমেন।
মিছিল ও সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অ্যাড. ফুল কুমার দাস তালুকদার, অ্যাড. সমীরণ তালুকদার, অ্যাড. মলয় চক্রবর্তী রাজু, অ্যাড. বশির আহমদ, অ্যাড. বিশ্বজিত চক্রবর্তী, অ্যাড. বিপ্লব ভট্টাচার্য, অ্যাড. আসাদ উল্লাহ সরকার, অ্যাড. আব্দুল অদুদ, অ্যাড. বুরহান উদ্দিন দোলন, অ্যাড. আলম নূর হীরা, অ্যাড. আনোয়ার হোসেন, অ্যাড. আবুল হোসেন, অ্যাড. শফিকুল ইসলাম, অ্যাড. জমির উদ্দিন, অ্যাড. সায়াদ, অ্যাড. জুয়েল তালুকদার, অ্যাড. কল্লোল তালুকদার প্রমুখ।
আওয়ামী অঙ্গসংগঠন
২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে স্বাগত জানিয়ে শহরে তাৎক্ষণিক মিছিল ও পথসভা করে আওয়ামী লীগ, কৃষক লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্র লীগের নেতাকর্মীরা।
রায়কে স্বাগত জানিয়ে শহরে পথসভা করেছে কৃষক লীগের নেতাকর্মীরা। বুধবার দুপুরে শহরের আলফাত স্কয়ারে (ট্রাফিক পয়েন্ট) এই পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা কৃষক লীগের আহবায়ক আব্দুল কাদির শান্তি মিয়ার সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব বিন্দু তালুকদারের সঞ্চালনায় পথসভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. হায়দার চৌধুরী লিটন, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুর রহমান সিরাজ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক শাহ আবু নাসের, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. আব্দুল আজাদ রুমান, দপ্তর সম্পাদক অ্যাড. নূরে আলম সিদ্দিকী উজ্জ্বল, সুনামগঞ্জ পৌর কৃষক লীগের আহবায়ক কল্লোল তালুকদার, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা কৃষক লীগের সদস্য মুহিবুর রহমান মুহিব।
পথসভায় বক্তারা বলেন,‘ শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার আদালতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আদালতের রায়কে আমরা স্বাগত জানাই। তবে এই রায়ে আমরা সন্তুষ্ট নই। আমরা আশা করেছিলাম ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার মূল কারিগর তারেক জিয়ার সর্বোচ্চ শাস্তি হবে। কিন্তু তাকে যাবজ্জীবন কারাদ- প্রদান করা হয়েছে। আমরা দাবি জানাই এই রায়ের বিরুদ্ধে যেন দ্রুত আপিল করা হয়, এবং আইনের মাধ্যমে খুনি তারেক জিয়ার সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করা হয়।’
পথসভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অভিজিৎ চৌধুরী, সদস্য আতিকুর রহমান আতিক, অ্যাড. হাসান মাহবুব সাদী, জেলা কৃষক লীগের যুগ্ম আহবায়ক গৌতম কুমার বণিক, সদর উপজেলা কৃষক লীগের যুগ্ম আহবায়ক নজরুল ইসলাম, মোল্লাপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সুভাষ পাল, কুরবাননগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, যুবলীগ নেতা জমিরুল হক পৌরব, মাশহুদুর রহমান শাহেদ, ইশতিয়াক আলী রিপন, মাসুক মিয়া, জেলা ছাত্র লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ হারুন, কুরবাননগর ইউনিয়ন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক লিটন মিয়া, গৌরারং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি সারোয়ার আহমেদ, জেলা শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের সভাপতি এম. এ আরমান, সাধারণ সম্পাদক রেজুয়ান আহমেদ ইউনুছ, সদস্য রুয়েল আহমেদ, তালুকদার, সেজুল আহমেদ, সুয়েব আবেদীন, আহসাদ মাছুম, মো. জাহিদ, সামাদুল হক ছোটন, কাওছার আহমেদ শিমুলসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড কৃষক লীগের নেতাকর্মীরা।
রায় ঘোষণার পরপরই বুধবার দুপুরে শহরের রমিজ বিপণির আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় থেকে মিছিল বের করে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা। মিছিলটি বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে পুনরায় রমিজ বিপণিতে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুবের আহমদ অপু, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মখলিছ রহমান, জহির আলী খান প্রমুখ।
এছাড়াও রমিজ বিপণি থেকে মিছিল বের করে আওয়ামী লীগ, যুব লীগ, ছাত্র লীগের নেতাকর্মীরা। মিছিলটি বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে পুনরায় রমিজ বিপণিতে গিয়ে মিলিত হয়।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর চন্দ্র দাস, জুনেদ আহমদ, মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শীতেশ তালুকদার মঞ্জু, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আসাদুজ্জামান সেন্টু, সদস্য নুরুল ইসলাম বজলু, সবুজ কান্তি দাস, জেলা ছাত্র লীগের সভাপতি দিপংকর কান্তি দে, সহ সভাপতি লিখন আহমদ, সৈয়দ আপন, কাওছার আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান রিপন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জগৎজ্যোতি রায়, রাহাত আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক জুনায়েদ আহমদ প্রমুখ।
এদিকে বুধবার দুপুরে মামলার রায়কে স্বাগত জানিয়ে পৌর মেয়র নাদের বখতের নেতৃত্বে শহরে মিছিল ও পথসভা করেছে করেছেন নেতাকর্মীরা।
পৌর চত্বর থেকে মিছিল বের হয়ে বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করে আলফাত স্কয়ারে (ট্রাফিক পয়েনেট) এসে পথসভায় মিলিত হয় তারা। পথসভায় বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগ নেতা পৌর মেয়র নাদের বখত।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল, আওয়ামী লীগ নেতা বিজয় তালুকদার বিজু, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বিকাশ কান্তি দে বাবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লিটন সরকার, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি সেলিম আহমদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আবুল হোসেন, জেলা তথ্য ও প্রযুক্তি লীগের সভাপতি কল্লোল চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক শাহীন আলম, যুগ্ম সম্পাদক তোফায়েল আহমদ রনি, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নবনী দাস, জেলা বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব অনিমেষ পাল ভানু, সদর উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মিঠুন চন্দ, পৌর ছাত্র লীগের সভাপতি স্বাক্ষর রায়, সাধারণ সম্পাদক শাহারিয়ার প্রমুখ।