লন্ডনের স্থানীয় নির্বাচন : কাউন্সিলর পদে জগন্নাথপুরের বাসিন্দাদের জয় জয়কার

জগন্নাথপুর অফিস
যুক্তরাজ্যর প্রবাসী অধ্যুষিত জগন্নাথপুর উপজেলার অনেক বাসিন্দা টাওয়ার হ্যামলেটস সহ বিভিন্ন শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ায় তাদের জয় নিয়ে বাঙালি কমিউনিটির পাশাপাশি নিজ জন্মভূমি জগন্নাথপুরে খুশির বন্যা বইছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নের শাহারপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সাবিয়া কামালী লেবার পার্টির প্রার্থী হিসেবে লন্ডন বারা অব নিউ হামের স্টাটপোর্ট এলাকা থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন।
উপজেলার একই ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের বাসিন্দা সৈয়দা সায়মা আহমেদ লন্ডনের রেডব্রীজ এলাকা থেকে কাউন্সিলের নির্বাচনে বাঙালি নারী প্রার্থী হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো কাউন্সিলর পদে বিজয়ী হয়েছেন।
একই গ্রামের বাসিন্দা সৈয়দ আলী আহমেদ লেবার পার্টি রচডেল এলাকা থেকে তৃতীয়বারের মতো কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন।
সৈয়দ শেকুল ইসলাম লেবার পার্টি থেকে লন্ডনের রেডব্রিজ বারার ক্রানব্রোক ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি সৈয়দপুর গোয়ালগাঁও এর বাসিন্দা।
একই এলাকার শেখ আব্দুল কাদির লিবারেল ডেমোক্রেট পার্টি প্রার্থী হিসেবে সেন্ট্রাল সাউথসি ওয়ার্ড থেকে প্রথমবারের মতো কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। অপরদিকে উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের জগদীশপুর গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী শাকিলা বেগম যুক্তরাজ্যের ওয়ালসাল পালফ্রি ওয়ার্ড থেকে লেবারপার্টির মনোনয়নে প্রথম বারের মত কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন।
জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নের শাহারপাড়া গ্রামের বাসিন্দা যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাংবাদিক শাহেদ রাহমান ও আমিনুল হক ওয়েছ জানান, টাওয়ার হ্যামলেটসের মেয়র পদে বাঙালি লুৎফুর রহমান নির্বাচিত হয়েছেন। ইতোমধ্যে জগন্নাথপুর উপজেলার সাতজন কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ায় তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে। লন্ডনে বাঙালি কমিউনিটিতে তাদের বিজয়ে আনন্দ দেখা গেছে।
উপজেলার সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী মোহাম্মদ আবুল হাসান বলেন, বাংলাদেশ থেকে লন্ডনে গিয়ে আমাদের এলাকার সন্তানরা মেয়র কাউন্সিলর নির্বাচিত হচ্ছেন যা সত্যি আনন্দের। আমার ইউনিয়নের ৫ জন কাউন্সিলর নির্বাচিত হওয়ায় আমরা ইউনিয়নবাসী আনন্দিত। তিনি বলেন, তাঁরা নির্বাচিত হওয়ায় দেশে থাকা স্বজনদের মধ্যে আনন্দ উচ্ছ্বাস দেখা দিয়েছে।