শক্তিমানের শেষকৃত্যে যাওয়া পাঁচজনকে গুলি করে হত্যা

সু.খবর ডেস্ক
রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমার শেষকৃত্যে যাওয়ার পথে পাঁচজনকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার সীমান্তবর্তী বেতছড়ি এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, সকালে শক্তিমান চাকমার শেষকৃত্যে অংশ নিতে একটি খোলা জিপে কয়েকজন নানিয়ারচর যাচ্ছিলেন। জিপটি বেতছড়ি এলাকায় এলে সন্ত্রাসীরা গাড়িটিকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে থাকে। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হন। পরে হাসপাতালে মারা যান আরও দুইজন। এই ঘটনায় কমপক্ষে পাঁচজন আহত হয়েছেন।
পুলিশ জানায়, নিহতদের মধ্যে সম্প্রতি নতুনভাবে গঠিত গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ এর প্রধান তপন জ্যোতি চাকমা বর্মার লাশও রয়েছে। নিহত অপর তিনজন হলেন মহালছড়ি যুব সমিতির সুজন চাকমা, তুজিম চাকমা ও ড্রাইভার রাসেল। বাকি একজনের নাম জানা যায়নি। আহতদের খাগড়াছড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
এই হত্যাকান্ডের পর আতঙ্কে রাঙামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। প্রায় চার ঘণ্টা পর বিকালে এই সড়কে যান চলাচল শুরু হয়।
মহালছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান বিমল কান্তি পাঁচজন নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা সদরে নিজ কার্যালয়ের সামনে সন্ত্রাসীদের হাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শক্তিমান চাকমা। এসময় তাকে বহনকারী মোটরসাইকেল চালক রূপম চাকমাও গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন।