শামীম চৌধুরীর মুক্তি ও মামলা থেকে নাম প্রত্যাহারের দাবি

ছাতক প্রতিনিধি
জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক, ছাতক উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শামীম আহমদ চৌধুরীর নিঃশর্ত মুক্তি এবং থানা পুলিশের দায়েরী মামলা থেকে তার নাম প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।
এক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, কেবল হয়রানী করার জন্যই একটি বিশেষ মহলের ইন্ধনে পুলিশের দায়েরী এসল্ট মামলা ও বিস্ফোরক মামলায় জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য শামীম আহমদ চৌধুরীকে জড়ানো হয়েছে।
বিবৃতিতে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক, ছাতক পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী, ছাতক উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক আবরু মিয়া তালুকদার, যুগ্ম আহবায়ক ও জেলা পরিষদ সদস্য আজমল হোসেন সজল, দোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ফরিদ আহমদ তারেক, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক শামীমুল ইসলাম শামীম, জেলা পরিষদ সদস্য আমিনুল ইসলাম সেলিম, ইউপি চেয়ারম্যান দেওয়ান পীর আব্দুল খালিক রাজা, সাইফুল ইসলাম, ছাতক পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মৃদুল কান্তি দাস মিন্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য দেওয়ান আবুল কালাম মাস্টার, হাজী আফতাব মিয়া, সোহরাব আলী, শাহীন তালুকদার, ইসলামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জয়নাল আবেদীন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাই, ছাতক সদর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি নুরুল হক মেম্বার, নোয়ারাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. রেদওয়ানুল হক আরজু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মমিন, কালারুকা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন, গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, ছৈলা-আফজলাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতাহির আলী, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, দোলারবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আশিক মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, সিংচাপইড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাসিব, সাধারণ সম্পাদক রাখাল চন্দ্র পাল, জাউয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রেজা মিয়া তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হক, দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রুহুল আমিন তালুকদার, উত্তর খুরমা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আরশ আলী খান ভাসানী, সাধারণ সম্পাদক আজাম মিয়া মেম্বার, ভাতগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সোহেল আহমদসহ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ শামীম আহমদ চৌধুরীর নিঃশর্ত মুক্তি এবং থানা পুলিশের দায়েরী মামলা থেকে তার নাম প্রত্যাহোরের দাবি জানিয়েছেন।