শারজায় পরিকল্পনামন্ত্রী/ ‘বর্তমান সরকার সংস্কারের সরকার’

সু.খবর ডেস্ক
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, ‘বর্তমান সরকার সংস্কারের সরকার। সরকারের উদ্দেশ্য হলো, বাঙালিকে বাঙালি হিসেবে আত্মসম্মান ও পরিচয় তুলে ধরে পৃথিবীতে বসবাস করার সুযোগ করে দেয়া। সকল দেশের মানুষের সঙ্গে সমান মর্যাদায় বসবাস করার জন্য অর্থনৈতিক উন্নতি প্রয়োজন। এই অগ্রগতিতে সবচেয়ে বেশি সহায়তা করছেন প্রবাসীরা। প্রবাসীসহ দেশের কৃষি কাজে নিয়োজিত, গার্মেন্টস ও কলকারখানায় কর্মরত তিন শ্রেণির নাগরিক বাংলাদেশের অর্থনীতিতে বেশি অবদান রাখছেন।’
শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ এক্সপো সেন্টারে প্রবাসী মেলার উদ্বোধনকালে পরিকল্পনামন্ত্রী এসব কথা বলেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী জন্ম নিবন্ধনের নতুন সংস্করণের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ‘জন্মনিবন্ধনের নতুন সংস্করণ হচ্ছে। এটি হবে সারাজীবনের জাতীয় পরিচয়পত্র। এ ধরনের আরও অনেক সংস্কার সরকার করতে চায়।’
দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. আবু জাফর তার বক্তব্যে রেমিট্যান্স বাড়তে প্রবাসী ও বিনিয়োগকারীদের সুযোগ—সুবিধা নিশ্চিত করার তাগিদ দেন।
উদ্বোধনী অধিবেশনে দুবাই বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল বি এম জামাল হোসেনের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরও অংশ নেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর কাজী সাইদুর রহমান, অ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংকার্স বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ও ব্র্যাক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সেলিম আর এফ হোসেন, এনআরবি—সিআইপি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও এনআরবি ব্যাংকের চেয়ারম্যান মাহতাবুর রহমান নাসির সিআইপি।
প্রথম সচিব (শ্রম) ফকির মনোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় এ সময় বাংলাদেশের অর্থনীতির বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন কনস্যুলেটের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর কামরুল হাসান।
পরে মন্ত্রী মেলার বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখেন। বৈধপথে রেমিট্যান্স বাড়াতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের উৎসাহিত করতে তিন দিনব্যাপী এই মেলার আয়োজন করেছে আইডিয়া গ্যালারি। পঞ্চম বারের মতো আয়োজিত এই মেলায় অংশ নিয়েছে সাতটি বেসরকারি ব্যাংক, বেশ কয়েকটি এক্সচেঞ্জ হাউজ ও রিয়েল এস্টেট কোম্পানি। মেলায় সর্বমোট ২০টি স্টল স্থান পেয়েছে। শনিবার দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশ মহিলা সমিতির পিঠা উৎসব ও শাড়ি প্রদর্শনীর ফ্যাশন শো অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া শিশু—কিশোরদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সাজানো হয়েছে এবারের আয়োজন। শুক্রবার শুরু হওয়া মেলা চলবে আগামী রবিবার মধ্যরাত পর্যন্ত।
সূত্র : সমকাল