শাল্লায় উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার
শাল্লা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মামুনুর রহমানের অনিয়ম দুর্নীতির প্রতিবাদে উপজেলা সদরে মানববন্ধন হয়েছে। সোমবার দুপুর ১ টায় উপজেলা সদরের ভেতরের গলিতে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে মুক্তিযোদ্ধা, ব্যবসায়ী ও সমাজসেবীরা উপস্থিত ছিলেন।
উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের ব্যানারে আয়োজিত প্রায় আধা ঘণ্টার মানববন্ধনে মুক্তিযোদ্ধা জ্যোতিষ দাস, মনোরঞ্জন দাস, কামনা দাস প্রমুখ বক্তব্য দেন।
বক্তারা বলেন, মৎস্য কর্মকর্তা মামুনুর রহমান যোগদানের পর থেকেই বিল শুকিয়ে মাছ ধরতে ইজারাদারদের সহায়তা করছেন। উপজেলা পরিষদের সরকারি কোয়ার্টারে একটি স্থানীয় পরিবারকে থাকার সুযোগ করে দিয়েছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ভুল বুঝিয়ে শাল্লা সদরের একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়কে দোকান কোঠা নির্মাণ
করাচ্ছেন। সড়ক সরু হওয়ায় গলির অন্য দোকানীদের বলেছেন, কাঠের পাল্লার দরজা এখন আর চলবে না। সাটার ব্যবহার করতে হবে। তাঁর এমন আচরণ বন্ধ না হলে আরও কঠোর কর্মসূচী দেওয়া হবে বলে জানান বক্তারা। বক্তারা জানান, মৎস্য কর্মকর্তার অনিয়মের প্রতিবাদ করলেই মামলা- মোকদ্দমার হুমকি দেন তিনি।
উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মামুনুর রহমান এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে বলেন, এসব ঢালাও অভিযোগ, এগুলোর কোন ভিত্তি নেই। উপজেলা পরিষদের কোয়ার্টারে আমি কাউকে থাকতে দেবার ক্ষমতা নেই। আমি কাউকে বিল শুকিয়ে মাছ ধরার সুযোগ কখনই দেই নি। দোকান কোঠা নির্মাণ হচ্ছে উপজেলা পরিষদের সিদ্ধান্তে। দোকান কোঠা নির্মাণের পরও ১১ ফুট সড়ক থাকছে। এই সড়ক এলজিইডি’র যে সড়কে লেগেছে, সেই সড়কের প্রস্তও ১২ ফুট।